JanaBD.ComLoginSign Up

হুটহাট ‘মন খারাপ’ জেঁকে ধরলে

লাইফ স্টাইল 3rd Jun 2016 at 11:47am 474
হুটহাট ‘মন খারাপ’ জেঁকে ধরলে

‘কিছু ভালো লাগছে না।’ বাক্যটি আমরা অনেকেই যেন প্রতিনিয়ত জপ করি। কিন্তু কিছু ভালো লাগছে না বলে সব ফেলে রাখলে চলবে কি করে? অফিস করতে হবে, সংসার সামলাতে হবে সঙ্গে নিজকেও ভালো রাখতে হবে। তাই হুটহাট ডিপ্রেসনে পড়ে গেলে নিজের উদ্ধারকর্তা হয়ে আবির্ভূত হতে হবে নিজেকেই। চেষ্টা করতে হবে এমন কিছু করার যেন সহজেই মন ভালো হয়ে যায়। জেনে নিন তেমনই কিছু টিপস।

মন ভালো করতে ব্যায়ামের কোনো বিকল্প নেই। যদি লম্বা সময় ধরে আপনি ডিপ্রেশনে ভুগে থাকেন তাহলে কোনো একটা জিমে ভর্তি হয়ে যান। চাইলে কোনো ইয়োগা ক্লাসেও সময় দিতে পারেন। যেমন সময়টাও কেটে যাবে সহজে, তেমনেই মনটাও সহজে ভালো হয়ে যাবে।

মনই ভালো নেই, তাহলে কিসের সাজগোজ। এমনটাই যদি ভেবে থাকেন তাহলে ভুল ভাবছেন। মন ভালো নেই বলেই তো সাজবেন। নিজের জন্য সাজুন। নিজের মনের মতো করে সেজে আয়নার সামনে দাঁড়িয়ে দেখুন। মন ভালো হয়ে যাবে নিশ্চিত।

প্রিয় কোনো বন্ধুর সঙ্গে সময় কাটান। তবে ফেসবুকে না। ফোনে কথা বলুন। অথবা সরাসরি দেখা করুন। দেখবেন মন ভালো হয়ে যাবে নিশ্চিত। মনের কথা খুলে বলুন। কেন খারাপ লাগছে, সমাধান কি হতে পারে সেটা বলুন। দেখবেন মনটা বদলে যাবে নিমেষে।

যতটা পারেন হাসিখুশি থাকার চেষ্টা করুন। মন যতই খারাপ হোক, চেষ্টা করুন নিজেকে খুশি রাখতে। গান শুনতে পারেন। তবে সেটা দুঃখের গান না শোনাই ভালো। মজার কোনো ভিডিও দেখে মন ভালো করতে পারেন।

রান্নাবান্নায় সময় দিতে পারেন। রান্না যেমন একটি আর্ট, তেমনই বলা যায় এটা একটা থেরাপিও। মজার একটি খাবার রান্না করার পর সেটি মুখে দিলেই দেখবেন মনটা ভালো হয়ে যাচ্ছে। আর কি চাই?

খেলাধুলা করতে পারেন। তাই বলে যেন ভিডিওগেম খেলতে বসবেন না। মানুষের সঙ্গে সময় কাটান। লুডু, ক্যারম বা দাবার মতো কোনো ইনডোর গেমও খেলতে পারেন। দেখবেন মন বদলে যাবে নিমেষে। খোলা মাঠে খেলতে পারলে আরো ভালো।

নিজের জন্য খনিকটা সময় বের করুন। সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যম থেকে দূরে যান। বন্ধ করুন ফোনও। এরপর নিজের সঙ্গে সময় কাটান। প্রকৃতির সঙ্গে সময় কাটান। সবুজ কোনো পথ ধরে হেঁটে আসতে পারেন, খানিকটা সময় ধরে পছন্দের কোনো বই পড়তে পারেন। দেখবেন মনের প্রকৃতিও বদলে যেতে সময় লাগবে না।

Googleplus Pint
Like - Dislike Votes 4 - Rating 5 of 10
Relatedআরও দেখুনঅন্যান্য ক্যাটাগরি

পাঠকের মন্তব্য (0)