JanaBD.ComLoginSign Up

Internet.Org দিয়ে ফ্রিতে ব্রাউজ করুন আমাদের সাইট :) Search করুন , "জানাবিডি ডট কম" পেয়ে যাবেন ।

ঘামাচি থেকে মুক্তির সহজ উপায়!

সাস্থ্যকথা/হেলথ-টিপস 17th Jun 2016 at 11:30am 117
ঘামাচি থেকে মুক্তির সহজ উপায়!

গরমে অনেকেরই ঘামাচির সমস্যা হয়। আর গরমের মধ্যে ঘামাচি হলে তো আর রক্ষা নেই। এ থেকে সহজে পরিত্রাণ পাওয়া যায়না। অসহ্য গরমে ঘামাচি থেকে মুক্তি পাওয়ার কিছু উপায় দেখে নিন-

অনেকের প্রচণ্ড ঘাম হয়, তাদের ক্ষেত্রে ঘামাচিটা বেশি হতে পারে গরমে। অনেকের ত্বকে যে চারটা স্তর আছে, এই স্তরে সবচেয়ে ওপরে যাদের ফোসকার মতো পড়ে, এটিই এক ধরনের ঘামাচি। ঘামাচি হলে শুষ্ক আবহাওয়ায় থাকা উচিত এবং প্রচণ্ড গরমের মধ্যে না থাকে। কাপড়চোপড় কম দিয়ে রাখে। ঘামাচি হলে প্রতিরোধের একটি ব্যবস্থা নেওয়া উচিত।

অনেকে ঘামাচি হলে পাউডার দেন বা বিভিন্ন ধরনের জিনিস দেন। এতে ঘামাচিগুলো পেকে যায়। বরং ঘামাচির জন্য ক্যালামিন লোশনের সঙ্গে অলিভ অয়েল মিশিয়ে শরীরে লাগানো অথবা গোসলের আগে ফ্রিজ থেকে বরফ নিয়ে শরীরে সাবানের মতো ঘষে গোসল করলে, ঘামাচি থেকে নিজেকে রক্ষা করতে পারেন।

এছাড়া ঘামাচি পেকে গেলে একটি অ্যান্টিবায়োটিক খেতে পারেন। মূলত প্রতিদিন অলিভ অয়েল ও ক্যালামিন লোশন দুটো মিলিয়ে শরীরে লাগালে ভালো হয়। পাশাপাশি একটি অ্যান্টিহিস্টামিন নিতে পারেন যেন শরীরটা না চুলকায়। তাহলে এই ঘামাচি থেকে পরিত্রাণ পাবেন।
আরো কিছু সমাধান দেখে নিন-

মুলতানি মাটি: ৪-৫ টেবিল চামচ মুলতানি মাটি, ২-৩ টেবিল চামচ গোলাপজল ও পরিমান মত পানি মিশিয়ে একটি ঘন পেস্ট তৈরি করুন। ঘামাচি আক্রান্ত জায়গায় পেস্টটি লাগান ও ২-৩ ঘন্টা রাখুন। তারপর ঠান্ডা পানিতে ধুয়ে ফেলুন।

ঠান্ডা পানি: ঠান্ডা পানিতে একটি পরিস্কার সুতি কাপড় ভেজান। তারপর সেটি তুলে আক্রান্ত জায়গায় লাগান যতক্ষণ না জায়গাটি পানি শুষে নিচ্ছে। এভাবে দিনে ২-৩ বার করুন। এতে ঘামচি দ্রুত সেরে উঠবে।

বেকিং সোডা:১ কাপ ঠান্ডা পানিতে ১ টেবিল চামচ বেকিং সোডা নিন। একটি পরিস্কার কাপড় এতে ভিজিয়ে নিংড়ে নিন ও ঘামাচি আক্রান্ত জায়গায় লাগান।

নিম পাতা: নিমপাতা ভালোভাবে বেটে নিন। খানিকটা পানি মিশিয়ে পেস্ট তৈরী করুন এবং আক্রান্ত জায়গায় লাগান। সম্পূর্ণ না শুকানো পর্যন্ত অপেক্ষা করুন।

নিমপাতার এন্টি ব্যাকটেরিয়াল উপাদান ঘামাচির জীবানু মেরে ফেলে দ্রুত আপনাকে ঘামাচি থেকে মুক্তি দেবে। কিছুক্ষণ পর তুলে ফেলুন। ভালো ফলাফল পাবার জন্যে দিনে ৪-৫ বার এটি করতে পারেন।

লেবুর রস: প্রতিদিন কমপক্ষে ৩-৪ গ্লাস লেবুর শরবত পান করুন একটু বেশি করে লেবু মিশিয়ে। এটি ঘামাচি নিরাময়ে কাজ করবে স্রেফ জাদুর মতই!

এলোভেরা:এলোভেরার রস বের করে ঘামাচি আক্রান্ত জায়গায় লাগিয়ে রাখুন না শুকোনো পর্যন্ত। এরপর ঠান্ডা পানিতে গোসল করে নিন।

তবে বেশি সমস্যা হলে চিকিৎসকের কাছে যাওয়া উচিত।

Googleplus Pint
Noyon Khan
Manager
Like - Dislike Votes 5 - Rating 4 of 10
Relatedআরও দেখুনঅন্যান্য ক্যাটাগরি

পাঠকের মন্তব্য (0)