JanaBD.ComLoginSign Up

বাংলাদেশের ফুটবলের কোচ হতে আগ্রহী বেলজিয়ামের সেইন্টফিট!

ফুটবল দুনিয়া 23rd Jun 2016 at 8:14pm 407
বাংলাদেশের ফুটবলের কোচ হতে আগ্রহী বেলজিয়ামের সেইন্টফিট!

বয়স খুব বেশি নয়, ৪৩ বছর। তবে এরই মধ্যে ছয়টি জাতীয় দলে বিভিন্ন মেয়াদে কোচের দায়িত্ব পালন করেছেন টম সেইন্টফিট।

বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনের (বাফুফে) সঙ্গে আলোচনা করতে ঢাকায় আসা বেলজিয়ামের এই কোচ মামুনুলদের দায়িত্ব নিতে পারেন বলে গুঞ্জন শোনা যাচ্ছে।

এশিয়ান কাপের বাছাই পর্বে ওঠার প্লে-অফের প্রথম পর্বের জন্য আলোচিত কোচ লোডভিক ডি ক্রুইফকে ফিরিয়ে আনে বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশন (বাফুফে)।

দুশানবেতে ৫-০ ভরাডুবির পর ফিরতি লেগে বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে ১-০ গোলে তাজিকিস্তানের কাছে হারে মামুনুলরা। স্বপ্ন দেখিয়ে হতাশ করার পর নেদারল্যান্ডসে ফেরেন ক্রুইফ।

এশিয়ান কাপের বাছাইয়ে পর্বে ওঠার প্লে-অফের দ্বিতীয় রাউন্ডে ভুটানের মুখোমুখি হবে বাংলাদেশ। ৬ সেপ্টেম্বর ঢাকায় ও ১১ অক্টোবর ভুটানের মাঠে ফিরতি লেগের ম্যাচ খেলবে বাংলাদেশ। ক্রুইফের হাত ধরে প্রথম পর্বে আশা ভঙ্গের পর নতুন কোচের খোঁজে ছিল বাফুফে।

দুই পক্ষের আলোচনা কিছুটা এগুনোয় বৃহস্পতিবার বাফুফে সভাপতি কাজী সালাউদ্দিনের সঙ্গে আলোচনা করতে ঢাকায় আসেন সেইন্টফিট।

টোগো, মালাউই, ইয়েমেন, ইথিওপিয়া, জিম্বাবুয়ে ও নামিবিয়া-এই ছয়টি দেশের জাতীয় দলের কোচের দায়িত্ব পালন করেন সেইন্টফিট। সালাউদ্দিনের সঙ্গে বৈঠকে বসার আগে বেলজিয়ামের এই কোচ জানালেন, বাংলাদেশের ফুটবল সম্পর্কে মোটামুটি জানাশোনা আছে তার।

“২০০৪ সালে যখন এএফসি অনূর্ধ্ব-১৭ চ্যাম্পিয়নশিপের জন্য জাপানে ছিলাম, তখন থেকে আমি বাংলাদেশ ফুটবলকে জানি। বাংলাদেশ ওই আসরে অংশ নিয়েছিল।

তখন থেকে আমি দলটির খোঁজখবর রাখি এবং কোচ ক্রুইফ ও ডিডোর ফলের খবরও নিয়েছি।

শেখ রাসেল ক্রীড়া চক্রের খেলা ইথিওপিয়ার ফরোয়ার্ড ফিকরু জেইদার প্রসঙ্গ টেনে তিনি বলেন, “এখানকার লিগের খবরও রাখি, এখানে আমার একজন সাবেক শিষ্য খেলে।”

সব শেষ টোগো দলের দায়িত্ব পালন করা সেইন্টফিট বাংলাদেশ নিয়ে আগ্রহের কথা জানালেও চুক্তির আগে বেশি কিছু বলতে রাজি হননি।

“আমাকে একটা বিষয় পরিষ্কার করতে দিন, আমি এ মুহূর্তে বাংলাদেশের নতুন কোচ নই; এখনও চুক্তি নিয়ে আমি কারো সঙ্গে কথা বলিনি। আমি টুর্নামেন্টের কিছু ম্যাচ দেখতে এসেছি এবং টেকনিক্যাল ডিরেক্টর ও বাফুফে সভাপতির সঙ্গে ফুটবল নিয়ে আলোচনা করব। এরপর হয়ত এখানে কোচ হয়ে আসার সুযোগ তৈরি হবে। তাই এখনই এ ব্যাপারে কিছু বলা একটু বেশি আগে হয়ে যায়।”

“তবে আমি একজন অভিজ্ঞ কোচ। আমি বাংলাদেশের ফুটবলকে ভালোবাসি এবং এ কারণেই আমি এখানে। এ মুহূর্তে সব কিছু উন্মুক্ত আছে, যে কোনো কিছুই হতে পারে এবং কোনো নিশ্চয়তা নেই।”

নিজের জানাশোনা থেকে সেইন্টফিটের মনে হচ্ছে ফুটবলে বাংলাদেশের সম্ভাবনা আছে।

“বাংলাদেশের কোচ হতে চাওয়ার অনেক কারণ আছে। দলটির অনেক সম্ভাবনা আছে এবং আমি যতদূর জানি, সাফ ফুটবলের মতো আঞ্চলিক চ্যাম্পিয়নশিপে বাংলাদেশের সাম্প্রতিক ফল ভালো নয়।

২০১০ ও ২০১২ সালের (সাফ) ফল ভালো হয়নি কিন্তু বাংলাদেশের মেধা আছে। এই দলটাকে বদলানোর জন্য এবং এশিয়ান কাপ বাছাইয়ে ভালো ফল এনে দেওয়ার জন্য আসতে পারলে আমি খুশি হব।”

ছয়টি জাতীয় দলের দায়িত্বে থাকলেও কোনোটাতেই দীর্ঘমেয়াদে থাকেননি সেইন্টফিট। তবে কখনও ছাঁটাই না হওয়ার বিষয়টি ‍তৃপ্তির সুরে জানালেন বেলজিয়ামের এই কোচ।

“ওই দলগুলো সঙ্গে আমার চুক্তিটা দীর্ঘমেয়াদী না হওয়ার অনেক কারণ আছে। যেমন আমি মালাউইতে নিয়োগ পেয়েছিলাম নাইজেরিয়ার বিপক্ষে তাদের বিশ্বকাপ বাছাইয়ের একমাত্র ম্যাচের জন্য। ৫ মাসের চুক্তি ছিল ইথিওপিয়ার সঙ্গে। চুক্তিগুলো ছিল স্বল্পমেয়াদী কিন্তু আমি কখনও ছাঁটাই হইনি।”

উচ্চাভিলাষী হওয়ার কারণেই বারবার চাকরি বদল করার কথা জানিয়ে সেইন্টফিট বলেন, “আফ্রিকা, মধ্যপ্রাচ্যে ভালো ফল এনে দেওয়ার সুনাম আমার আছে এবং এখানেও আমি সুনাম অর্জন করতে চাই এবং সে জন্য বাংলাদেশ আমার জন্য একটা ভালো অপশন হতে পারে।”

Googleplus Pint
Noyon Khan
Manager
Like - Dislike Votes 3 - Rating 6.7 of 10
Relatedআরও দেখুনঅন্যান্য ক্যাটাগরি

পাঠকের মন্তব্য (0)