JanaBD.ComLoginSign Up

Internet.Org দিয়ে ফ্রিতে ব্রাউজ করুন আমাদের সাইট :) Search করুন , "জানাবিডি ডট কম" পেয়ে যাবেন ।

ত্বক ফর্সা করার এই রহস্যগুলো আপনার জানা রয়েছে তো!

রূপচর্চা/বিউটি-টিপস 24th Jun 2016 at 10:47pm 665
ত্বক ফর্সা করার এই রহস্যগুলো আপনার জানা রয়েছে তো!

সবাই চায় আয়নার সামনে দাঁড়িয়ে নিজেকে সুন্দর দেখতে। ইচ্ছে হয় নিজের জীবন সঙ্গী বলুক তুমি শ্রেষ্ঠ,তুমি সুন্দরের আধার।কিন্তু এই সুন্দর লাবণ্যময়ী ত্বকের অধীকারি হতে হলে তো একটু ত্বকের যত্ন করতে হবে। চলুন দেখে নেওয়া যাক ঘরোয়া পদ্ধতিতে ত্বকে ফর্সা ও কোমল করার উপায়।

১।কাঁচা দুধ ও চন্দন একসাথে মিশিয়ে ভাল করে মুখে লাগান। লাগানোর পর কথা বলবেন না। ১৫-২০ মিনিট সময় নিয়ে এটাকে শুকাতে দিন। শুকিয়ে গেলে ঠান্ডা পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। এটি আপনার ত্বক ভেতর থেকে পরিষ্কার করবে। ত্বকে করবে ফর্সা ও কোমল। ১৫ দিন ব্যবহারে বুঝতে পারবে ত্বকের পরিবর্তন।

২।শশার রসের সাথে কর্ণফ্লাওয়ার গুলিয়ে নিন। মুখে,গলায় লাগান এবং শুকাতে দিন। টানটান ভাব অনুভব করলে ঠান্ডা পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। ত্বকে সতেজ ভাব ফিরে পাবেন।

৩।১ গ্লাস দুধে কয়েকটা জাফরান দিয়ে গুলিয়ে খান। এটি ত্বকের জন্য খুব উপকারি। দুধ ও জাফরান আপনার ত্বককে সম্পূর্ণভাবে ভিতর পরিষ্কার করে ত্বক করবে উজ্জ্বল ও ফর্সা। কথিত আছে যে,গর্ভবতী মহিলা যদি রোজ ১ গ্লাস দুধে জাফরান গুলিয়ে খায় তবে তার গর্ভের সন্তান প্রকৃতভাবে ফর্সা ও সৌন্দর্যের অধিকারী হবে।

৪।বাঁধাকপি কেটে পরিষ্কার পানি দিয়ে ধুয়ে নিন। একটি পাত্রে পানি দিয়ে বাঁধাকপি সিদ্ধ করুন। সিদ্ধ হলে ওই পানি একটা পরিষ্কার পাত্রে ধরে সেটি দিয়ে মুখ ধোবেন। বাঁধাকপির এই পানি আপনার ত্বক উজ্জ্বল করবে।

৫।আলু বেটে নিন। বাটা আলু এবং লেবুর রস একসাথে মিশিয়ে মুখে লাগান। ১০-১৫ মিনিট রাখুন।ঠান্ডা পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। এটি আপনার ত্বককে করবে নিশ্ছিদ্র এবং ফর্সা।

৬।শশা ও লেবুর রসের মিশ্রণ ঘরোয়া রুপচর্চার একটি অসাধারণ পদ্ধতি। শশা ও লেবুর রস মিশিয়ে তুলার সাহায্যে মুখে লাগান। শুকিয়ে গেলে আলতো করে ঘষে নিয়ে মুখ ধুয়ে ফেলুন। কেউ চাইলে এই মিশ্রণ ফ্রিজে রেখে বরফ করে সেই বরফ মুখে ঘষে নিতে পারেন। এতে সমান পরিমাণ কাজ হবে। উপরন্তু আপনার ত্বকে শীতলতার অনুভূতি দিবে।

[যাদের এলার্জির সমস্যা আছে তারা এই আলু,লেবুর মিশ্রণ এবং শশা ও লেবুর রসের মিশ্রণ লাগাবেন না। লেবু অনেক সময় ত্বকে এলার্জি বৃদ্ধি করে এবং মুখ চুলকাতে শুরু হয়]

৭।দুধ,শশার রস,নারিকেল তেল মিশিয়ে মুখে লাগান। এটি আপনার ত্বকে ব্লিচিং এর কাজ করবে। লাগানোর পরেই পরিবর্তন লক্ষণ করুন। নিজেই বুঝতে পারবে এটি লাগানোর পূর্বে ত্বক কেমন ছিলো আর লাগানোর পর কেমন।

Googleplus Pint
Mizu Ahmed
Manager
Like - Dislike Votes 9 - Rating 7.8 of 10
Relatedআরও দেখুনঅন্যান্য ক্যাটাগরি

পাঠকের মন্তব্য (0)