JanaBD.ComLoginSign Up
জানা হবে অনেক কিছু, চালু হয়েছে জানাবিডি (JanaBD) এন্ডয়েড এপস । বিস্তারিত জানুন..
Internet.Org দিয়ে ব্রাউজ করুন আমাদের সাইট ফ্রী , "জানাবিডি ডট কম"

অভিষেক-ঐশ্বর্যার প্রেমকাহিনী জানেন? যে কোনও রোম্যান্টিক ফিল্মকে হার মানাবে এই গল্প!

বিবিধ বিনোদন 4th Jul 2016 at 1:10pm 585
অভিষেক-ঐশ্বর্যার প্রেমকাহিনী জানেন? যে কোনও রোম্যান্টিক ফিল্মকে হার মানাবে এই গল্প!

করিশ্মা কপূরের সঙ্গে অভিষেক বচ্চনের বিয়ে প্রায় পাকা হয়ে গিয়েছিল। সেখান থেকে সম্পূর্ণ অপ্রত্যাশিতভাবে ভেঙে যায় তাঁদের সম্পর্ক। এর পরে রানি মুখোপাধ্যায়ের সঙ্গে তাঁর সম্পর্ক নিয়ে নানা কানাঘুষো শোনা যায়। এমনকী এ-ও শোনা গিয়েছিল যে, বাঙালি হওয়ার সুবাদে রানি ছিলেন জয়া বচ্চনের বিশেষ পছন্দের প্রার্থী। কিন্তু পুরো হিসেবটাই ঘুরিয়ে দিয়েছিল একটি ছবি— ‘‘বান্টি অউর বাবলি’’। সেই ছবিতে নায়িকা ছিলেন রানি। কিন্তু ‘‘কজরারে’’ আইটেম সং-এ গোটা ভারতকে নাচিয়েছিলেন ঐশ্বর্যা। বলিউডে অনেকেই বলেন, এই আশ্চর্য সমাপতনেই মোড় ঘুরেছিল ঐশ্বর্যা এবং অভিষেকের প্রেমকাহিনির।

নানা কথা শোনা যায় এই জুটিকে নিয়ে। কেন তাঁরা একে অন্যের প্রেমে পড়লেন, সেই প্রশ্নের একটি উত্তর এই রকম— সলমন এবং করিশ্মার সঙ্গে দু’জনের সম্পর্ক ভেঙে গিয়েছিল। তার পরে দুই ভাঙা মন জোড়া লাগতে সময় নেয়নি। কিন্তু এ নেহাতই সহজ দুইয়ে-দুইয়ে চার হিসেব। অভিষেক এবং ঐশ্বর্যার প্রেমপর্ব নিয়ে নানা গল্প ছড়িয়ে রয়েছে বলিউডে। তার মধ্যে একটি তো অসম্ভব চিত্তাকর্ষক। একেবারে সিনেমার মতো।

দু’জনের প্রেম একেবারেই ‘‘লাভ অ্যাট ফার্স্ট সাইট’’ ছিল না। ‘‘ঢাই অক্ষর প্রেম কে’’, ‘‘কুছ না কহো’’-র মতো ছবিতে দু’জনে অভিনয় করেছেন একসঙ্গে। তখনও তাঁরা খুব ভাল বন্ধু। প্রেমের ব্যাপারটা আসে ‘‘গুরু’’ ছবিতে কাজ করতে গিয়ে।

অভিষেক কিন্তু তার প্রায় একবছর আগেই ঐশ্বর্যাকে মন দিয়ে ফেলেছিলেন। যদিও সে কথা মুখে আনতে পারেননি। ২০০৬ সালে মুক্তি পেয়েছিল ‘‘কভি আলবিদা না কহেনা’’। সেখানে একটি আবেগঘন দৃশ্য ছিল যেখানে বাবার ছবি (ফিল্মে অভিষেকের বাবা হয়েছিলেন অমিতাভ বচ্চনই) বুকে আঁকড়ে অভিষেক রানি মুখোপাধ্যায়কে জানাবেন, বাবা আর নেই। এই দৃশ্যে অভিষেক এবং রানির অভিনয় এতটাই ভাল হয় যে, সেটে উপস্থিত সকলে তো বটেই, পরিচালক কর্ণ জোহর পর্যন্ত কেঁদে ফেলেন।

এমন একটি দৃশ্যের পরে অভিষেকের মন হালকা করতে তাঁকে নিয়ে লং ড্রাইভে বেরিয়ে পড়েন বিখ্যাত মেক-আপ আর্টিস্ট মিকি কনট্র্যাকটর। সেখানেই আবেগপূর্ণ মুহূর্তে অভিষেক মিকিকে তাঁর মনের কথা জানান। এর পরেই ঐশ্বর্যার কাছে যায় অভিষেকের প্রস্তাব। উপহার হিসেবে দিয়েছিলেন সেই আংটি, যা ‘‘গুরু’’-তে ব্যবহার করা হয়েছিল।

শোনা যায়, জয়া বচ্চনের অবশ্য অভিষেকের জন্য পছন্দ ছিলেন রানি মুখোপাধ্যায়। কিন্তু ‘‘বান্টি অউর বাবলি’’ ছবির সেটে নাকি অভিষেক-ঐশ্বর্যার মধ্যে রসায়ন দেখে ছেলের জন্য অমিতাভের মনে ধরে যায় বিশ্বসুন্দরীকে। অতঃপর ২০০৭ সালের জানুয়ারিতে এনগেজমেন্ট এবং এপ্রিলে বিয়ে।

জানা হবে অনেক কিছু, চালু হয়েছে জানাবিডি (JanaBD) এন্ডয়েড এপস । বিস্তারিত জানুন..

Googleplus Pint
Like - Dislike Votes 6 - Rating 5 of 10
Relatedআরও দেখুনঅন্যান্য ক্যাটাগরি

পাঠকের মন্তব্য (0)