JanaBD.ComLoginSign Up

Internet.Org দিয়ে ফ্রিতে ব্রাউজ করুন আমাদের সাইট :) Search করুন , "জানাবিডি ডট কম" পেয়ে যাবেন ।

ঈদের পরে চুলের যত্ন

রূপচর্চা/বিউটি-টিপস 13th Jul 2016 at 10:18am 285
ঈদের পরে চুলের যত্ন

ঈদ মানে আনন্দ, ঈদ মানে খুশী, ঈদ মানে দিক-বিদিক ঘুরে বেড়ানো, নতুন সাজ, নতুন স্টাইল। প্রায় সময়ই কাঙ্খিত সাজের খোঁজে, বিশেষ করে ঈদের সময়ে আমরা আমাদের মসৃণ স্ট্রেইট চুলের সাজ পাল্টে বেছে নেই তরঙ্গময় কোঁকড়া চুল, কেউ হয়তো বা বেছে নেই চুলের হাইলাইট।

যার কারণে আমাদের চুলের ক্ষতি হয় এবং চুলের স্বাস্থ্য নষ্ট হয়ে যায়। চুলের রং ও স্টাইলের জন্য ব্যবহৃত অতিরিক্ত তাপমাত্রা ও কেমিক্যালের কারণে ঈদ-পরবর্তী সময়ে চুল হয়ে উঠে রুক্ষ, শুষ্ক ও ভঙ্গুর, যা অবশ্যই কাঙ্ক্ষিত নয়। ঘরোয়া উপায়ে যত্ন নিয়ে ঠিক করে নিতে পারেন আপনার চুল।

চলুন জেনে নিই ঘরোয়া উপায়ে চুলের যত্নের কিছু টিপস....

১। ঈদের সময় চুল রং করেছেন। চুলের এই রং বহুদিন ধরে রাখতে সানস্ক্রিনের সাথে কন্ডিশনার ব্যবহার করুন। কারণ অতিরিক্ত সূর্যরশ্মি আপনার চুলের রং দ্রুত নষ্ট করে দেয় এবং চুল হয়ে যায় রুক্ষ।

২। স্ট্রেইটনার দিয়ে চুলের স্টাইলিং করে আপনার চুল শুষ্ক ও ভঙ্গুর হয়ে গেছে? এই ক্ষতি নিরাময় করতে পারে কুসুম-গরম নারিকেল তেলের ম্যাসাজ, যা চুলের গভীরে পৌঁছে ভিতর থেকে পুষ্টি জোগায়, স্ক্যাল্পের রক্ত প্রবাহ বৃদ্ধি করে এবং এটির কন্ডিশনার স্বরূপ বৈশিষ্ট্য চুলকে কন্ডিশন করে। ফলে চুলের গোড়া ও চুল হয় আরও মজবুত। সপ্তাহে কমপক্ষে তিনবার চুলে নারিকেল তেল দিয়ে ম্যাসাজ করুন এবং থাকুন নিশ্চিন্ত, আজীবনের জন্য ।

৩। শুষ্ক চুলে স্টাইলিং এর প্রসাধনী ব্যবহার করে চুলকে সহজেই নিজের ইচ্ছেমত সাজিয়ে তোলার প্রলোভন এড়ানো দায়। কিন্তু বেশিরভাগ প্রসাধনীতে কেমিক্যালের ব্যবহার মাত্রাতিরিক্ত; যা সময়ের সাথে সাথে আপনার চুলের ক্ষতি বাড়িয়ে দেয়। তাই ঘরে তৈরি হেয়ার প্যাক ব্যবহার করুন। এছাড়া স্ট্রেইটনার ব্যবহারের পর অবশ্যই হিট স্টাইলিং লোশন বা স্প্রে ব্যবহার করবেন।

৪। যদি আপনি সতর্ক না হন তাহলে স্টাইলের প্রসাধনী যেমন হেয়ার মুস ও হেয়ার স্প্রে আপনার মনমাতানো চুলের সাজ থেকে খুলে নেয়ার সময় চুলের অনেক ক্ষতি হয়। অনেক সময় চুল ছিঁড়ে যায়। কেমিক্যালগুলো দূর করতে আপনার চুলে নারিকেল তেলে ম্যাসাজ করে নিন, যা ক্ষতিকর কেমিক্যাল শুষে নেবে এবং একই সাথে চুলকে কন্ডিশন করবে। এরপর মাইল্ড শ্যাম্পু দিয়ে চুল ধুয়ে ফেলুন, এতে চুল থাকবে কোমল ও নমনীয়।

৫। শুনতে একটু উদ্ভট মনে হতে পারে, কিন্তু ঘন ঘন চুলে শ্যাম্পু দেয়া থেকে বিরত থাকুন; কেননা স্কাল্পের প্রাকৃতিক তেল আপনার চুলের জন্য ময়েশ্চারাইজার হিসেবে কাজ করে। তাই প্রতিদিন শ্যাম্পু করে চুলের ময়েশ্চারাইজার না হারিয়ে সপ্তাহে তিন দিনের বেশি শ্যাম্পু ব্যবহার না করাই ভালো।

Googleplus Pint
Like - Dislike Votes 4 - Rating 5 of 10
Relatedআরও দেখুনঅন্যান্য ক্যাটাগরি

পাঠকের মন্তব্য (0)