JanaBD.ComLoginSign Up

কোহলির শতকে ভারতের দিন!

ক্রিকেট দুনিয়া 22nd Jul 2016 at 8:59am 366
কোহলির শতকে ভারতের দিন!

মন্থর উইকেট, আউটফিল্ডও খুব ধীর; ওয়েস্ট ইন্ডিজের বোলাররাও বাজে বল দেননি খুব একটা। এন্টিগা টেস্টের প্রথম দিন রানের জন্য তাই ঘাম ঝরাতে হল ভারতকে। এর মধ্যেই দারুণ এক শতকে সিরিজের সুরটা বেঁধে দিয়েছেন অতিথি দলের অধিনায়ক বিরাট কোহলি।

কোহলির দৃঢ়তা আর শিখর ধাওয়ানের অর্ধশতকে প্রথম টেস্টের প্রথম দিন শেষে ভালো অবস্থানে রয়েছে ভারত। টস জিতে ব্যাট করতে নামা দলটির সংগ্রহ ৪ উইকেটে ৩০২ রান। কোহলি ১৪৩ ও রবিচন্দ্রন অশ্বিন ২২ রানে ব্যাট করছেন। অবিচ্ছিন্ন পঞ্চম উইকেটে এরই মধ্যে তারা গড়েছেন ৬৬ রানের জুটি।

শুরু থেকেই আত্মবিশ্বাসী ব্যাটিং করা কোহলি শতরানের পৌঁছান কার্লোস ব্রেথওয়েইটের বলে এক রান নিয়ে। টেস্টে এটি তার দ্বাদশ শতক। রাহুল দ্রাবিড় ও কপিল দেবের পর ভারতের তৃতীয় অধিনায়ক হিসেবে ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফরে শতক করলেন তিনি। ১৯৭ বলের ইনিংসটি তার ১৬টি চার সমৃদ্ধ।

বৃহস্পতিবার স্যার ভিভিয়ান রিচার্ড স্টেডিয়ামের মন্থর উইকেটে ভারতের শুরুটা সহজ ছিল না। সুশৃঙ্খল বোলিংয়ে প্রথম সেশনে অতিথিদের টপ অর্ডারের ভালো পরীক্ষাই নেন ওয়েস্ট ইন্ডিজের পেসাররা।

গতি আর বাড়তি বাউন্সে ভারতের দুই উদ্বোধনী ব্যাটসম্যানকে স্বস্তি দিচ্ছিলেন না শ্যানন গ্যাব্রিয়েল। অন্য প্রান্তে অধিনায়ক জেসন হোল্ডারের আঁটসাঁট বোলিং সহায়ক ছিল চাপ ধরে রাখার জন্য।

লোকেশ রাহুলকে পেছনে ফেলে এন্টিগা টেস্টে খেলা শিখর ধাওয়ান ভাগ্যর কিছুটা সহায়তাও পেয়েছেন। গ্যাব্রিয়েলের বাউন্সার কয়েকবার অল্পের জন্য তার ব্যাটের কানা নেয়নি।

পরপর চারবার পরাস্ত হলেও কোনোমতে বেঁচে যান তিনি।
ভাগ্য ততটা সহায়ক ছিল না মুরালি বিজয়ের। ওয়েস্ট ইন্ডিজে আবার ব্যর্থ হয়েছেন এই উদ্বোধনী ব্যাটসম্যান।

গ্যাব্রিয়েলের লাফিয়ে উঠা বলে স্লিপে ক্যাচ দিয়ে ফিরেন তিনি। ক্রেইগ ব্রেথওয়েইট তালগোল পাকিয়েও শেষ পর্যন্ত বল তালুবন্দি করেন।

এই ইনিংসসহ ওয়েস্ট ইন্ডিজে ৭ ইনিংসে বিজয়ের রান ৭৯।
নড়বড়ে শুরুর পর থিতু হওয়ার সুবিধা কাজে লাগাতে থাকেন ধাওয়ান। তবে দ্বিতীয় সেশনের প্রথম ওভারেই নিজের উইকেট উপহার দেন চেতেশ্বর পুজারা। l

বিশুর শর্ট বলে পুল করতে গিয়ে বল তার ব্যাটের কানায় লেগে পয়েন্টে সহজ ক্যাচ উঠে যায়। এবার কোনো ভুল ছাড়াই তালুবন্দি করেন ক্রেইগ ব্রেথওয়েইট।

লাঞ্চের আগে শেষ ওভারে আবার আঘাত হানেন গত অক্টোবরের পর প্রথম টেস্ট খেলতে নামা বিশু। এই লেগ স্পিনারের বল সুইপ করতে গিয়ে এলবিডব্লিউর ফাঁদে পড়েন ধাওয়ান।

মাঝের সময়টুকুতে রাজত্ব করেন কোহলি-ধাওয়ান। তৃতীয় উইকেটে এই দুই জনে ২৭.১ ওভারে গড়েন ১০৫ রানের জুটি।

ভারতের ইনিংসে যে গতির অভাব ছিল তা পূরণ করেন অধিনায়ক কোহলি। প্রথম ১০ বলের মধ্যে দুটি চার আদায় করে নেন তিনি। দ্বিতীয় চারে ৭৩তম ইনিংসে টেস্টে তিন হাজার রানের মাইলফলক অতিক্রম করেন ভারতের অধিনায়ক।

সাত ইনিংসে কোহলির সঙ্গে ধাওয়ানের চতুর্থ পঞ্চাশ বা বেশি রানের জুটি শেষ হয় উদ্বোধনী ব্যাটসম্যানের বিদায়ে।

একাদশে জায়গা হারানোর শঙ্কায় থাকা ধাওয়ান ৯টি চার আর একটি ছক্কায় ১৪৭ বলে করেন ৮৪ রান।

দিনের শেষ সেশনে ফিরে যান অজিঙ্কা রাহানে। বিশুর বলে পুল করতে গিয়ে মিডউইকেটে ড্যারেন ব্রাভোকে সহজ ক্যাচ দেন তিনি। প্রত্যাশার চেয়ে ধীরে আসা বলে রাহানের বাজে শটে ভাঙে কোহলির ৫৭ রানের জুটি।

পাঁচ বিশেষজ্ঞ বোলার নিয়ে খেলা ভারত উইকেটরক্ষক-ব্যাটসম্যান ঋদ্ধিমান সাহার আগে ব্যাটিংয়ে পাঠায় অশ্বিনকে। দিনের বাকি সময়ে কোহলিকে ভালোই সঙ্গ দেন তিনি।

সংক্ষিপ্ত স্কোর:
ভারত প্রথম ইনিংস: ৯০ ওভারে ৩০২/৪ (বিজয় ৭, ধাওয়ান ৮৪, পুজারা ১৬, কোহলি ১৪৩*, রাহানে ২২, অশ্বিন ২২*; গ্যাব্রিয়েল ১৩-৪-৪৩-১, হোল্ডার ১৭-৪-৪১-০, কার্লোস ব্রেথওয়েইট ১৫-৩-৪৬-০, চেইজ ১৭-০-৫৪-০, বিশু ২৭-০-১০৮-৩, ক্রেইগ ব্রেথওয়েইট ১-০-৪-০)।

Googleplus Pint
Noyon Khan
Manager
Like - Dislike Votes 4 - Rating 5 of 10
Relatedআরও দেখুনঅন্যান্য ক্যাটাগরি

পাঠকের মন্তব্য (0)