JanaBD.ComLoginSign Up

নিহত এক জঙ্গির দাবিদার দুই পরিবার!

দেশের খবর 27th Jul 2016 at 6:54pm 751
নিহত এক জঙ্গির দাবিদার দুই পরিবার!

পরিচয় নিশ্চিত হতে রাজধানীর কল্যাণপুরে পুলিশ ও সোয়াটের অভিযানে নিহত নয় ‘জঙ্গি’র ছবি প্রকাশ করে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ (ডিএমপি)। প্রকাশিত ছবি দেখে নিহত একজনকে নিজেদের ছেলে বলে দাবি করেছে দেশের দুই জেলার দুটি পরিবার।

পুলিশের প্রকাশ করা নয়জনের ছবির মধ্যে তৃতীয় সারির মাঝের নিহত যুবককে জোবায়ের হোসেইন (২০) বলে শনাক্ত করেছেন তাঁর পরিবারের সদস্যরা। আজ বুধবার সকালে ডিএমপি প্রকাশিত ছবি দেখে ওই যুবকে নিজেদের ছেলে বলে চিহ্নিত করেন নোয়াখালীর পশ্চিম মাইজদীর সুধারামপুর উপজেলার আব্দুল কাইয়ুম ও আয়েরা বেগম। জুবায়ের তাঁদের তিন সন্তানের মধ্যে সবার ছোট।

এদিকে একই ছবি দেখিয়ে তাঁকে নিজের ছেলে সাব্বিরুল হক কনিক বলে সন্দেহ প্রকাশ করেছেন চট্টগ্রামের আনোয়ারা উপজেলার বরুনছড়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি আজিজুল হক চৌধুরী। তবে লাশ দেখে চূড়ান্তভাবে শনাক্ত করবেন বলে জানিয়েছেন তিনি।

নোয়াখালীর পরিবারটির দাবি, নিহত যুবক নোয়াখালী সরকারি কলেজের রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী। চাচাতো ভাই ও প্রতিবেশী বাহাদুরসহ গত মে মাস থেকে নিখোঁজ রয়েছে সে।

গুলশান হামলার ঘটনার পর এই মাসেই সন্তানের নিখোঁজের বিষয়ে থানায় একটি সাধারণ ডায়রি করেন আব্দুল কাইয়ুম। নিখোঁজের পর থেকে একবারও পরিবারের সঙ্গে জুবায়ের যোগাযোগ করেননি বলে জানান তাঁর বাবা। ফেসবুকে প্রকাশিত জঙ্গিদের ছবি দেখেই তিনি তাঁর ছেলেকে শনাক্ত করেন। নোয়াখালীর পুলিশ সুপার ইলিয়াস শরীফ জানিয়েছেন, নোয়াখালী থেকে নিখোঁজ পাঁচজনের মধ্যে জুবায়েরও একজন।

এদিকে আজ দুপুরে চট্টগ্রাম জেলা পুলিশ সুপারের কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে পুলিশ সুপার নুরে আলম মিনা জানান, আজিজুল হক চৌধুরী বর্তমানে চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনে কর্মরত। তাঁর দুই মেয়ে এক ছেলের মধ্যে সাব্বিরুল হক কনিক সবার বড়। সে চার মাস ধরে নিখোঁজ। তবে পরিবারের সম্মানের কথা ভেবে এত দিন বিষয়টি থানায় জানাননি আজিজুল হক চৌধুরী। ডিএমপি প্রকাশিত নিহতদের ছবি দেখে সেখানে থাকা তৃতীয় সারির মাঝের যুবককে সাব্বির বলে সন্দেহ হয় আজিজুল হকের । তবে লাশ দেখে পুরোপুরি নিশ্চিতভাবে বলতে পারবেন বলেও জানান তিনি। লাশ শনাক্ত হলে ছেলের লাশ গ্রহণ করবেন না জানিয়ে আজিজুল হক পুলিশকে বলেছেন, সেক্ষেত্রে পুলিশের মাধ্যমে জাতির কাছে ক্ষমা চাইবেন তিনি।

পুলিশ জানিয়েছে, দুটি পরিবারের সদস্যদেরই ঢাকায় আনা হচ্ছে লাশ শনাক্তের জন্য।

Googleplus Pint
Like - Dislike Votes 6 - Rating 5 of 10
Relatedআরও দেখুনঅন্যান্য ক্যাটাগরি

পাঠকের মন্তব্য (0)