JanaBD.ComLoginSign Up
জানা হবে অনেক কিছু, চালু হয়েছে জানাবিডি (JanaBD) এন্ডয়েড এপস । বিস্তারিত জানুন..
Internet.Org দিয়ে ব্রাউজ করুন আমাদের সাইট ফ্রী , "জানাবিডি ডট কম"

ব্যান্ডেজ লাগাতে হাসপাতালে হনুমান!

সাধারন অন্যরকম খবর 2nd Aug 2016 at 7:57am 968
ব্যান্ডেজ লাগাতে হাসপাতালে হনুমান!

রাতভর ডিউটির শেষে সবেমাত্র দুই নার্স একটু চেয়ারে হেলান দিয়েছেন। ঘুম থেকে উঠে চোখ কচলাচ্ছেন কেউ কেউ। সকাল হয়েছে মাত্র। পুরুয ওয়ার্ডে কেউ কেউ যন্ত্রণায় কাতরাচ্ছেন। কারও স্যালাইন চলছে।

হঠাৎ সেখানে একটি হনুমানের প্রবেশ। মুহূর্তে আতঙ্ক ছড়িয়ে পরল রোগীদের মধ্যে। একজনতো বিছানা থেকে পড়ে গেলেন। কিন্তু এতে কোন ভ্রূক্ষেপই নেই হনুমানের। এদিক ওদিক তাকিয়ে দেখে একটু পরেই খোলা দরজা দিয়ে সে হঠাৎ হাজির নার্সদের ঘরে।

এদিকে আচমকা ঘরে বানরকে দেখে ভয়ে তাদেরও অবস্থা খারাপ। কী করা উচিত তা ভাবতে ভাবতেই কাটছে সময়।

কিন্তু বার বার নিজের পা তুলছে কেন হনুমানটা! তাদের একজনের নজরে পড়ল তার ডান পায়ের দিকে। চামড়া উঠে বেশ রক্ত ঝড়ছে পা থেকে। বুঝতে পেরে কোন মতে সাহস নিয়ে একজন নার্স এগিয়ে যান তার দিকে। ধীরে ধীরে হাত দিয়ে দেখেন ক্ষতস্থান।

ওই নার্স বলেন, 'টেবিলের উপর তখন একেবারে বাধ্য রোগীর মতো চুপ করে বসে রয়েছে হনুমানটি। আস্তে আস্তে ওষুধ লাগিয়ে ব্যান্ডেজ বেঁধে দিই ওর পায়ে। ব্যান্ডেজ বাঁধার পরে গায়ে দু’বার হাত বুলোতেই ধীরে সুস্থে ওয়ার্ড থেকে বেরিয়ে এ গাছ সে গাছ করতে করতে অদৃশ্য হয়ে গেল সে।'

এ নিয়ে রোববার দিনভর আলোচনা চলেছে গোটা হাসপাতালে। শনিবার ভারতের চুঁচুড়া ইমামবাড়া (সদর) হাসপাতালে কী চিকিৎসা করাতেই এসেছিল হনুমানটি?

খবর পৌঁছে যায় জেলার মুখ্য স্বাস্থ্য কর্মকর্তা শুভ্রাংশু চক্রবর্তীর কানেও। ওই নার্সের কাজের প্রশংসা করে তিনি বলেন, 'এখানে যে চিকিৎসা হয়, হনুমানটির মধ্যে বোধ হয় সেই বোধ কাজ করেছিল!'

পথেঘাটে আহত হনুমানের চিকিৎসা করার অভিজ্ঞতা রয়েছে বন্যপ্রাণী সংরক্ষণ নিয়ে কাজ করা নালিকুলের একটি সংস্থার সম্পাদক বিশাল সাঁতরার। তিনি বলেন, 'ঠিক কী কারণে হনুমানটি হাসপাতালে ঢুকে পড়েছিল, বলা মুশকিল।

হতে পারে আগে কোন হনুমানকে ওই হাসপাতালে চিকিৎসা করাতে এবং তার পরে সুস্থ হতে দেখেছে। সেই অভিজ্ঞতা থেকেই এসেছে।'

জানা হবে অনেক কিছু, চালু হয়েছে জানাবিডি (JanaBD) এন্ডয়েড এপস । বিস্তারিত জানুন..

Googleplus Pint
Noyon Khan
Manager
Like - Dislike Votes 8 - Rating 3.8 of 10
Relatedআরও দেখুনঅন্যান্য ক্যাটাগরি

পাঠকের মন্তব্য (0)