JanaBD.ComLoginSign Up

Internet.Org দিয়ে ব্রাউজ করুন আমাদের সাইট ফ্রী , "জানাবিডি ডট কম"

ব্যথা ও প্রদাহ থেকে মুক্তি পাওয়ার প্রাকৃতিক ৫ টি উপায়

সাস্থ্যকথা/হেলথ-টিপস 28th Aug 2016 at 10:40am 283
ব্যথা ও প্রদাহ থেকে মুক্তি পাওয়ার প্রাকৃতিক ৫ টি উপায়

আপনি কি জানেন এমন কিছু প্রাকৃতিক খাবার আছে যা ব্যথা ও প্রদাহ এর কার্যকরী প্রতিকার হিসেবে কাজ করে? ব্যথা ও প্রদাহ হতে পারে আরথ্রাইটিস, ইনফ্লামেশন এবং রিওমাটয়েড আরথ্রাইটিস বা হারপিস ইনফেকশন এর জন্য।

• এই ধরণের ব্যথা থেকে মুক্ত হতে কিছু প্রাকৃতিক প্রতিকারের কথা জেনে নিই চলুন......

১। ফিশ ওয়েল
মাছের তেলে অ্যান্টি ইনফ্লামেটরি উপাদান ওমেগা ৩ ফ্যাটি এসিড থাকে যা পেশী ও হাড়ের রোগের নিরাময়ে সাহায্য করে। গবেষণায় জানা যায় যে, মাছের তেল NSAIDS ( non-steroidal anti-inflammatory drugs) কে প্রতিস্থাপনের এজেন্ট হিসেবে কাজ করে। উপকারিতা পেতে চাইলে ১.৫ গ্রাম মাছের তেল গ্রহণ করতে হবে প্রতিদিন।

২। হলুদ
হলুদে কারকিউমিন থাকে যা অ্যান্টি ইনফ্লামেটরি, অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট ও অ্যান্টিক্যান্সার গুণ সম্পন্ন। নন-স্টেরয়ডাল এজেন্টের প্রাকৃতিক বিকল্প হিসেবে কাজ করে প্রদাহ, দীর্ঘস্থায়ী নিউরোডিজেনারেটিভ ডিজিজ এবং আরথ্রাইটিস নিরাময়ে সাহায্য করার মাধ্যমে।

৩। গ্রিনটি
গ্রিনটি আরথ্রাইটিস নিরাময়ে অ্যান্টি-ইনফ্লামেটরি এজেন্ট হিসেবে কাজ করে যা অনেকেই জানেন না। গ্রিনটি এর পলিফেনোলিক যৌগ কেটেচিন ও এপিগেলোকেটেচিন ৩-গেলেট এই কাজটির জন্য দায়ী। প্রদাহ ও জয়েন্টের ব্যথা কমানোর জন্য প্রতিদিন ৩-৪ বার গ্রিনটি পান করুন।

৪। কর্পূর
কর্পূর লোবান নামেও পরিচিত। এতে শক্তিশালী অ্যান্টি-ইনফ্লামেটরি, অ্যান্টি আরথ্রাইটিক ও এনালজেসিক উপাদান থাকে যা ডিজেনারেটিভ এবং ইনফ্লামেটরি জয়েন্ট ডিজঅর্ডার নিরাময়ে কাজ করে। এটি শ্বেত রক্ত কণিকার পরিমাণ কমায় না এবং রিউমাটয়েড আরথ্রাইটিসের রোগীদের এনজাইম নিঃসরণকে বাঁধা দেয়। কর্পূরের তেল মালিশ করলে পেশীর ব্যথা ও ব্যথাযুক্ত জখম ভালো করতে সাহায্য করে।

৫। কাঁচা মরিচ
কাঁচা মরিচে ক্যাপসিয়াসিন নামক সক্রিয় উপাদান থাকে যা হারপিস জস্টার ইনফেকশনের দীর্ঘমেয়াদী ব্যথা নিরাময়ে সাহায্য করে। ত্বকের ব্যথাযুক্ত স্থানে ৪ সপ্তাহ যাবত কাঁচা মরিচ লাগালে উল্লেখযোগ্য হারে ব্যথা কমতে সাহায্য করে। ক্যাপসিয়াসিন একটি ইনফ্লামেটরি যৌগ যা জ্বলুনি সৃষ্টি করতে পারে। তাই ব্যবহারের পূর্বে ডাক্তারের সাথে কথা বলে নিন। ব্যথা ও প্রদাহ কমানোর জন্য আপনি আপনার খাদ্যের সাথে যুক্ত করতে পারেন কাঁচা মরিচ।

৬। আনারস
আনারসে শক্তিশালী এনজাইম ব্রোমেলেইন থাকে। যেখানে বেশীর ভাগ এনজাইম ই পরিপাকনালীতে ভাংতে শুরু করে সেখানে ব্রোমেলেইন সমস্ত শরীর দ্বারা শোষিত হয় বলে শরীরের বিভিন্ন তন্ত্রে এর প্রভাব পড়ে। যখন এটি রক্তস্রোতের মাধ্যমে শোষিত হয় তখন প্রদাহ ও ব্যথা কমাতে সাহায্য করে বলে গবেষণায় জানা যায়। আনারস খেলে আপনি কিছু ব্রোমেলেইন পেতে পারেন বিশেষ করে খালিপেটে আনারসের জুস পান করলে। আনারসের জুসের সাথে আদা, অ্যালোভেরা ও হলুদ মিশিয়ে পান করলে ব্যথা থেকে নিরাময় লাভ করা যায়।

Googleplus Pint
Like - Dislike Votes 2 - Rating 5 of 10
Relatedআরও দেখুনঅন্যান্য ক্যাটাগরি

পাঠকের মন্তব্য (0)