JanaBD.ComLoginSign Up

Internet.Org দিয়ে ফ্রিতে ব্রাউজ করুন আমাদের সাইট :) Search করুন , "জানাবিডি ডট কম" পেয়ে যাবেন ।

অস্ত্রের মূখে অপহরণ করে যুবতীকে ধর্ষণ!

দেশের খবর 9th Sep 2016 at 7:37pm 575
অস্ত্রের মূখে অপহরণ করে যুবতীকে ধর্ষণ!

নবীগঞ্জে অস্ত্রের মূখে জিম্মি করে অপহরণ করে নিয়ে নিজের বাড়িতে ও বিভিন্ন স্থানে আটক রেখে এক অসহায় ভুমিহীন মেয়ে জোর পুর্বক ধর্ষন করেছে আব্দুর রহিম (২৫) নামের এক যুবক। সে উপজেরার শৈলা গ্রামের মনু মিয়ার ছেলে।

এ ঘটনায় ভিকটিমের ভাই হবিগঞ্জ নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আদালতে মামলা দায়ের করলে আসামী ও তার লোকজন মামলা তুলে নেযার জন্য প্রাণনাশের হুমকী দিচ্ছে।

তাদের অনাগত হুমকীর কারনে বাদীর পরিবার চরম নিরাপত্তাহীনতাসহ আতংকের মাঝে দিনাপাত করছেন।

জানা যায়, উপজেলার বড় ভাকৈর (পুর্ব) ইউনিয়নের শৈলা গ্রামের মনু মিয়ার লম্পট ছেলে প্রায়ই একই গ্রামের ভুমিহীন ইরফান উল্লার মেয়ে এয়ারুন্নেছা কে উত্তোক্ত করতো।

ঘটনাটি গ্রামের মুরুব্বীয়ানদের জানালে লম্পট আব্দুর রহিম চরম ক্ষিপ্ত হয় এবং মেয়েটির সর্বনাশ করার জন্য ফন্দি আঁটে। এক পর্যায়ে মেয়েরটি ভাই মোজাক্কির মিয়া বাড়িতে না থাকার সুযোগে গত ১৪ ই আগষ্ট গভীর রাতে আব্দুর রহিম তার সঙ্গীয় লোকদের নিয়ে ঘরের বাশেঁর দরজা কৌশলে খোলে। এতে মেয়েটিকে অস্ত্রের মূখে অপহরণ করে তার বাড়িতে আটক রাখে।

সেখানে জোর পুর্বক একাধিকবার ধর্ষন করে। পরদিন রাতে স্থানীয় ভুমিপাড়ার উত্তরের হাওরে নিয়েও ধর্ষন করে। এ খবর এলাকায় ছড়িয়ে পড়লে গ্রামবাসী এগিয়ে গেলে লম্পট রহিম পালিয়ে যায় এবং ধর্ষিতা উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসেন গ্রামবাসী।

এ ঘটনায় ধর্ষিতার ভাই বাদী হয়ে নারী ও শিশু আদালতে মামলা নং ৬৬৭/২০১৬ইং দায়ের করলে বিজ্ঞ বিচারক এফআইআর গণ্যে মামলাটি রুজু করার জন্য নবীগঞ্জ থানা পুলিশকে নির্দেশ প্রদান করেন।

উক্ত মামলা দায়ের পর থেকে আব্দুর রহিম, আকল মিয়া, ফারুক মিয়া ও কদ্দুছ মিয়াসহ তার স্বজনরা বাদী এবং তার পরিবারের লোকজনকে প্রাণনাশের হুমকী দিয়ে আসছে।

তাদের অনাগত হুমকীর কারনে বাদীর পরিবার চরম আতংক ও নিরাপত্তহীনতায় ভোগছেন। এ ব্যাপারে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের সহযোগিতা কামনা করছেন নির্যাতিত পরিবার।

Googleplus Pint
Noyon Khan
Manager
Like - Dislike Votes 4 - Rating 5 of 10
Relatedআরও দেখুনঅন্যান্য ক্যাটাগরি

পাঠকের মন্তব্য (0)