JanaBD.ComLoginSign Up

অল্পের জন্য রক্ষা পেয়েছিলেন শ্রাবন্তী!

বিবিধ বিনোদন 23rd Oct 2016 at 5:09pm 851
অল্পের জন্য রক্ষা পেয়েছিলেন শ্রাবন্তী!

কালীপূজা মানেই আলোর উৎসব। নানারকম দেশি–বিদেশি আলোয় সেজে উঠবে শহর। নিজের বাড়ি আলোয় সাজিয়ে তোলেন তারকারাও। আলোর উৎসবের পাশাপাশি চলে বাজি পোড়ানো।

কালীপূজা নিয়ে ওপার বাংলার জনপ্রিয় অভিনেত্রী শ্রাবন্তী কলকাতার একটি গণমাধ্যমে মিষ্টি-মধুর স্মৃতি চারণ করেছেন।

কালীপূজা নিয়ে স্মৃতিচারণ করতে গিয়ে শ্রাবন্তী বলেনব, ‘বাজি পোড়াতে আমি চিরকাল ভালবাসি। দুর্গাপূজার বিজয়ার পরই মনে হয় কবে কালীপূজা আসবে। কালীপূজা মানেই বাজি পোড়ানো আর রঙিন আলো দিয়ে বাড়ি সাজানো।’

শৈশব টেনে শ্রাবন্তী বলেন, ‘আগে মাটির প্রদীপ বাড়িতে তৈরি হতো। আমার দাদুর সঙ্গে হাত লাগাতাম বাড়ি সাজাতে। এখন প্রদীপের বদলে এসেছে বিদেশি টুনি। আমার তো খুব ভাল লাগে। ছোটবেলায় একবার বাজি পোড়াতে গিয়ে বাজি ফেটে হাত পুড়ে গিয়েছিল। অল্পের জন্য রক্ষা পেয়েছিলাম। তবুও উৎসাহ একদম কমেনি। এখনো না।’

‘শিকারী’ ছবির এই নায়িকার ভাষ্য, ‘আমার থেকে আমার ছেলে ঝিনুকের উৎসাহ অবশ্য অনেক বেশি। এখন ঝিনুককে নিয়ে বাজি পোড়াই। আমার পৈতৃক বাড়ি কলকাতার পর্ণশ্রীতে। চেষ্টা করি কালীপূজার দু’টো দিন যাতে শুটিং না থাকে। এখন তো টিভির জন্য একটা খুব জনপ্রিয় শো হচ্ছে। টিভিতে কাজ করে বেশ ভাল লাগছে। কালীপূজার সময় অনেকের বাড়িতে নিমন্ত্রণ থাকে। যেতে হয় ঠাকুর দেখতে। তবে একটা কথা বলতে ভুলে যাচ্ছি, আমার ছেলে ঝিনুক যখনই বাজি পোড়ায়, আমি কিন্তু ওর সঙ্গে হাজির থাকি। কখনো ওকে একা বাজি পোড়াতে দিই না।’

তথ্যসূত্রঃ এবেলা

Googleplus Pint
Like - Dislike Votes 2 - Rating 5 of 10
Relatedআরও দেখুনঅন্যান্য ক্যাটাগরি

পাঠকের মন্তব্য (0)