JanaBD.ComLoginSign Up

মানিকছড়িতে বাঙালি নারীকে গণধর্ষণ

দেশের খবর 18th Nov 2016 at 5:14pm 484
মানিকছড়িতে বাঙালি নারীকে গণধর্ষণ

মানিকছড়ির কুমারী মৌজার অদূরে ডেবাতলী এলাকায় এক বাঙালি নারীকে গণধর্ষণ করেছে উপজাতি সন্ত্রাসীরা। এ ঘটনায় এলাকায় উত্তেজনা বিরাজ করছে। এলাকায় বসবাসরত পাহাড়ি-বাঙালির সম্প্রীতি রক্ষায় বিকালে শান্তি বৈঠকের আয়োজন করেছে জনপ্রতিনিধিরা।

পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার নির্জন জনপদ কুমারী মৌজার ডেবাতলীতে জনৈক শফি চৌধুরীর বাগানের পাহারাদার (নৈশ প্রহরী) মো. এমদাদুল হকের দ্বিতীয় স্ত্রীকে (৩০) বৃহস্পতিবার রাতে ঘর থেকে তুলে নিয়ে পার্শ্ববতী জঙ্গলে ধর্ষণ করে পালিয়ে যায় উপজাতি সন্ত্রাসীরা।

ধর্ষিতার স্বামী ও জনপ্রতিনিধিরা খবর পেয়ে সকালে অসুস্থ নারীকে (৩০) উদ্ধার করে উপজেলা হাসপাতালে ভর্তি করে। সেখানকার চিকিৎসক মহিউদ্দীন উন্নত চিকিৎসা ও পরবর্তী করণীয়ের জন্য তাকে জেলা সদর হাসপাতালে পাঠান।

হাসপাতালে উপস্থিত সংবাদকর্মীদের ধর্ষিতার স্বামী মো. এমদাদুল হক জানান, আমার দ্বিতীয় স্ত্রী ও ২ শিশু সন্তান এবং আমার বৃদ্ধ মা ওই বাগানে পাহারাদার হিসাবে থাকেন। আমি মাঝে-মধ্যে সেখানে যাই।

বৃহস্পতিবার রাত আনুমানিক ১১-১২টার দিকে ৮/১০ শসস্ত্র ও মুখোশদারী সন্ত্রাসী অস্ত্র নিয়ে ঘরে ঢুকে আমার বৃদ্ধ মা ও স্ত্রীকে মুখবেঁধে নিয়ে যায়। কিছুক্ষণ পর মা কৌশলে পালিয়ে এলেও স্ত্রীকে তারা ধর্ষণ করে তারা। সন্ত্রাসীরা উপজাতি ভাষায় এতে অপরের সাথে কথা বলেছেন।

এদিকে ধর্ষিত নারীকে হাসপাতালে আনার খবর পেয়ে ওই এলাকার শতাধিক নারী-পুরুষ এ ঘটনার প্রতিবাদে হাসপাতাল প্রাঙ্গনে জড়ো হন।

এদিকে ঘটনার প্রতিবাদে এবং বিষয়টি নিয়ে কেউ যেন পাহাড়ি-বাঙালির মাঝে বিভেদ সৃষ্টি করতে না পারে সে জন্য বিকালে কুমারী এলাকায় একটি শান্তি বৈঠকের আয়োজন করেছে ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মো. রফিকুল ইসলাম বাবুল।

ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে মানিকছড়ি থানার অফিসার ইনচার্জ মো. রাকিবুল ইসলাম বলেন, ধর্ষীত নারীর লিখিত অভিযোগ পাওয়া মাত্রই তা আমলে নেওয়া হবে। এলাকার পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখতে কার্বারী-পাড়া প্রধান, মেম্বার ও চেয়ারম্যানসহ বিকালে একটি শান্তি বৈঠকের উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে।

সূত্রঃ নয়াদিগন্ত অনলাইন

Googleplus Pint
Mizu Ahmed
Manager
Like - Dislike Votes 13 - Rating 7.7 of 10
Relatedআরও দেখুনঅন্যান্য ক্যাটাগরি

পাঠকের মন্তব্য (0)