JanaBD.ComLoginSign Up

যে ছয় কারণে পুরুষরা সম্পর্কে জড়াতে চান

লাইফ স্টাইল 21st Nov 2016 at 10:59am 523
যে ছয় কারণে পুরুষরা সম্পর্কে জড়াতে চান

প্রচুর সংখ্যক পুরুষই প্রতিশ্রুতিশীলতার ব্যাপারে ভীত। কিন্তু বহুল প্রচলিত বিশ্বাসের বিপরীতে বাস্তবে দেখা গেছে যে, বেশিরভাগ পুরুষই একটি নির্দিষ্ট সম্পর্কে থাকতে চান। হ্যাঁ, এমনটাই ঘটে। আর এর কারণগুলো হলো....

১. তারা শারীরিক স্পর্শ পছন্দ করেন
পুরষরা শারীরিক ঘনিষ্ঠতা পছন্দ করেন। শুধু যৌনতা নয়। এমনকি কোনো নারীর একটি যৌনতাহীন স্পর্শও তাদেরকে পাগল করে তুলতে পারে। আদর, পেছন থেকে আলিঙ্গন, তাদের চুল নিয়ে খেলা করা বা তাদের ঘাড়ে স্পর্শ প্রভৃতি তাদেরকে ভালোবাসা লাভের অনুভূতি এনে দেয়। এই সবগুলোই তাদেরকে সংযুক্তি, আবেগ এবং যত্নের অনুভূতি দেয় যা যে কোনো পুরষই ভালোবাসেন।

২. আবেগগত পরিপূর্ণতার অনুভূতি
প্রচুর সংখ্যক নারী হয়তো এই পয়েন্টটি নাকচ করে দেবেন। কিন্তু পুরুষরা সম্পর্কে প্রকৃতই আবেগগতভাবে জড়িয়ে পড়েন। একবার লজ্জা ভাঙ্গার পরই পুরুষরে ওই পেশীবহুল দেহটির ভেতরে লুকিয়ে থাকা অবুঝ শিশুটি বেরিয়ে আসে। পুরুষরা সাধারণত সকলের কাছেই তাদের আবেগগত দিকটি প্রদর্শন করেন না। কিন্তু একবার কোনো প্রতিশ্রুতিশীল সম্পর্কে জড়ালে তারা সঙ্গীনির সাথে যে কোনো সময় যে কোনো বিষয়ে খোলামেলা হয়ে ওঠেন।

৩. তাদের একটি চির সাহচর্য্য আছে
সম্পর্কে জড়ানোর সবচেয়ে বড় সুবিধা হলো আপনি ২৪x৭ ঘন্টা একজন সহচর পাবেন। পুরষরা প্রায়ই তাদের খেলা, সিনেমা ও গল্প বলার লোব সব একই আধারে খুঁজে পান। এর মানে তারা কখনোই একাকি অনুভব করবেন না।

৪. জীবনকে গুছানোর জন্য একজন অংশীদার
পুরষরা যখন নারীর সঙ্গে সম্পর্কে জড়ান তখন তারা তাদের অগোছালো জীবনটাকে গোছানোর জন্য একজন সহায়ক মানুষ পেয়ে যান। বিশেষ করে নিজেদের ঘরদোর গোছানোর জন্য আর তাদেরকে চিন্তা করে সময় নষ্ট করতে হয় না।

৫. তার আদর-যত্ন পেতে ভালোবাসেন
পুরষরা বয়সে যত বড়ই হন না কেন তারা সবসময়ই চান কেউ একজন তাদেরকে আদর-যত্ন করুক। নারীর যত্ন পেলে তাদের মন সহজেই ভালো হয়ে যায়।

৬. সৎ মতামতের জন্য নির্ভরশীলতা
সততা কে না পছন্দ করেন? বাইরে থেকে কাউকে যত শীতলই দেখাক না কেন সৎ কথপোকথনের মাধ্যমে যে কাউরই মন জয় করা সম্ভব। একজন নারী সঙ্গীনি হলেন এমন যার ওপর আপনি সৎ পরামর্শের জন্য নির্ভর করতে পারেন। হোক তা কোনো নতুন চুল কাটার ডিজাইন, একজোড়া স্কিনি জিনস বা যে কোনো আনুষ্ঠানিক আলোচনা।

Googleplus Pint
Like - Dislike Votes 4 - Rating 5 of 10
Relatedআরও দেখুনঅন্যান্য ক্যাটাগরি

পাঠকের মন্তব্য (0)