JanaBD.ComLoginSign Up

Internet.Org দিয়ে ব্রাউজ করুন আমাদের সাইট ফ্রী , "জানাবিডি ডট কম"

বিপিএল ২০১৬ : রংপুরের জয়রথ থামাল রাজশাহী

ক্রিকেট দুনিয়া 25th Nov 2016 at 5:11pm 478
বিপিএল ২০১৬ : রংপুরের জয়রথ থামাল রাজশাহী

টানা ৩ ম্যাচ জয়ের পর হারের স্বাদ পেল পয়েন্ট তালিকার শীর্ষ দল রংপুর রাইডার্স। আজ শুক্রবার মিরপুর শের-ই-বাংলা স্টেডিয়ামে দিনের প্রথম খেলায় সাব্বির রহমানদের রাজশাহী কিংসের কাছে ১২ রানের ব্যবধানে পরাজিত হলো সৌম্য সরকারদের দল। এর আগে টসে হেরে ব্যাটিংয়ে নেমে ৫ উইকেটে ১৬২ রান সংগ্রহ করে রাজশাহী কিংস।

রংপুরের দুই ওপেনার মিলে ২৮ রানের জুটি গড়েন। ২৬ বল খেলে ২ বাউন্ডারিতে ১৮ রান করে মোহাম্মদ শেহজাদ নাজমুল ইসলামের বলে বোল্ড হয়ে যান। এরপর ক্রিজে আসেন মোহাম্মদ মিথুন। সামিট প্যাটেলের করা নবম ওভারের পঞ্চম বলে নাসির জামসেদের তুলে দেওয়া একটি ক্যাচ দারুণভাবে লুফে নেন অধিনায়ক ড্যারেন স্যামি। কিন্তু শেষ পর্যন্ত টিভি রিপ্লেতে দেখা যায় বল মাটিতে ছুঁয়েছে। দ্বিতীয় উইকেট জুটিতে জামশেদ আর মিথুন মিলে ৪০ রান তোলেন। এরপর দুর্ভাগ্যজনক রানআউটের শিকার হয়ে ফিরে যান ২৮ বলে ৩ চার ১ ছক্কায় ২৭ রান করা নাসির জামশেদ।

দশম ওভারের শুরু থেকেই হাত খোলার চেষ্টা করেন রংপুরের ব্যাটসম্যানরা। কিন্তু লক্ষ্যটা আস্তে আস্তে বড় হয়ে যাচ্ছিল। সৌম্য সরকার যথারীতি ব্যর্থতার ধারাবাহিকতা রক্ষা করে ৮ রান করে নাজমুল ইসলামের বলে শট খেলতে গিয়ে বোল্ড হয়ে যান। এরপর ক্রিজে এসে ৪ বল খেলে সামিট প্যাটেলের বলে মোহাম্মদ সামির তালুবন্দী হয়ে বিদায় নেন আনোয়ার আলী (৫)। এর মধ্যেই ৩০ বলে ৩ চার এবং ৩ ছক্কায় ৫০ রান পূরণ করেন মোহাম্মদ মিথুন। এরপর লিয়াম ডসনও বেশিদূর যেতে পারেননি। ৭ বলে ১০ রান করে মোহাম্মদ সামির বলে উমর আকমলের হাতে ধরা পড়েন তিনি।

শেষ ওভারে ২৫ রানের সমীকরণে পড়ে যায় রংপুর রাইডার্স। কিন্তু শেষ পর্যন্ত ১২ রানে ম্যাচ জিতে নেয় রাজশাহী।

এর আগে দিনের প্রথম খেলায় সৌম্য সরকারের রংপুর রাইডার্সের বিপক্ষে ব্যাট করতে নেমে শুরুতেই উইকেট হারায় সাব্বিরের রাজশাহী। দলীয় ৪ রানেই সোহাগ গাজীর বলে এলবিডাব্লিউ হয়ে প্যাভিলিয়নে ফেরেন টুর্নামেন্ট জুড়ে দারুণ ব্যাট করতে থাকা মমিনুল হক (৪)। এরপর ক্রিজে আসেন এবারের আসরের একমাত্র সেঞ্চুরিয়ান সাব্বির রহমান। জুনায়েদ সিদ্দিকীর সঙ্গে জুটি বেঁধে বরাবরের মতোই আক্রমণাত্মক ব্যাটিং করতে থাকেন সাব্বির। ২৪ বলে ৪টি চার এবং ১টি ছক্কায় করেন ৩১ রান। বোঝা যাচ্ছিল সাব্বির হয়ত আজ 'মুডে' আছেন। কিন্তু আরাফাত সানির ঘূর্ণিতে তার সম্ভাবনাময় ইনিংসটির ইতি ঘটে।

এরপর দ্রুত উইকেট পতন ঘটে রাজশাহীর। লিয়াম ডসনের দ্বিতীয় ওভারের প্রথম বলেই ছক্কা মারতে গিয়ে রুবেল হোসেনের হাতে ক্যাচ দেন জুনায়েদ সিদ্দিকী। তিনি ২১ বলে ২ বাউন্ডারিতে করেন ২৩ রান। ওভারের শেষ বলে আবারও উইকেট পতন। এবারের শিকার সামিট প্যাটেল। এলবিডাব্লিউ হয়ে ফেরার আগে ১৮ বলে ১ বাউন্ডারিতে ১৭ রান করেন তিনি। এরপর ৭ বলে ১ বাউন্ডারিতে ৬ রান করে ফেরেন তরুণ সেনসেশন মেহেদী হাসান মিরাজ। মুক্তার আলীর বলে সরাসরি বোল্ড হয়ে যান তিনি।

এরপর এসে দলের হাল ধরেন অধিনায়ক ড্যারেন স্যামি। শুরু করেন ধুমধাড়াক্কা ব্যাটিং। ১৮ বলে ৩টি চার এবং ৪ ছক্কায় ৪৪ রান করে অপরাজিত থাকেন তিনি। উমর আকমল ২৪ বলে ২টি চার এবং ১ ছক্কায় ৩৩ রানে অপরাজিত থাকেন। ষষ্ঠ উইকেটে তাদের ৭০ রানের জুটির সুবাদে নির্ধারিত ২০ ওভারে ৫ উইকেটে ১৬২ রান সংগ্রহ করে রাজশাহী। লিয়াম ডসন ২ উইকেট এবং সোহাগ গাজী, আরাফাত সানি ও মুক্তার আলী ১টি করে উইকেট নেন।

তথ্যসূত্রঃ কালের কন্ঠ

Googleplus Pint
Like - Dislike Votes 4 - Rating 5 of 10
Relatedআরও দেখুনঅন্যান্য ক্যাটাগরি

পাঠকের মন্তব্য (0)