JanaBD.ComLoginSign Up

বডি ল্যাংগুয়েজের যে ৭ কৌশলে আপনি হবেন সবার থেকে আলাদা

লাইফ স্টাইল 26th Nov 2016 at 1:52pm 356
বডি ল্যাংগুয়েজের যে ৭ কৌশলে আপনি হবেন সবার থেকে আলাদা

একজন মানুষের সাথে যখন আপনার প্রথম দেখা হয়, তখন তার কোন বিষয়টি লক্ষ্য করেন? তার কথা বলার ধরণ, অঙ্গভঙ্গি নাকি বডি ল্যাংগুয়েজ। বডি ল্যাংগুয়েজ বা শারীরিক ভাষা বিষয়টিকে অনেকেই গুরুত্ব দিয়ে থাকেন না। অথচ এই বডি ল্যাংগুয়েজের মাধ্যমে বোঝা যায় একজন মানুষের মনের কথা। আবার ব্যক্তিত্বে ভিন্নমাত্রা যোগ করে বডি ল্যাংগুয়েজ। কিছু বডি ল্যাংগুয়েজ আছে যা আয়ত্ত করতে প্রথমদিকে কষ্টকর হলেও সময়ের সাথে সাথে অভ্যস্ত হয়ে পড়বেন। এমন কিছু বডি ল্যাংগুয়েজের সাথে পরিচিত হোওয়া যাক যা আপনার ব্যক্তিত্বকে আরোও আকর্ষণীয় করে তুলবে।

১। নিজেই হোন অন্যের প্রতিচ্ছবি
যার সাথে কথা বলছেন তার মুখোমুখি অথবা তার সমান হয়ে বসার চেষ্টা করুন। অন্যের আয়না হওয়ার চেষ্টা করুন। তবে কাজটি কিছুটা সাবধানে করবেন, যেন তিনি এটিকে বিদ্রুপ বা ঠাট্টা মনে না করেন। অন্যকে ইমপ্রেস করার জন্য এটি একটি দারুন কৌশল।

২। আত্নবিশ্বাসের সাথে হাঁটুন
সবাই আত্নবিশ্বাসের সাথে হাঁটতে পারেন না। কেউ কেউ হোঁচট খান আবার অনেকে আছেন মাটির দিকে তাকিয়ে হাঁটেন। এইসকল মানুষদের আত্মবিশ্বাস খুবই কম থাকে। আত্মবিশ্বাসী মানুষরা বিশ্বাসের সাথে সামনের দিকে তাকিয়ে হাঁটেন। হঠাৎ করে হাঁটার ধরণ পরিবর্তন করা কিছুটা কঠিন হলেও কিছুদিন যাওয়ার পর আপনি এতে অভ্যস্ত হয়ে পড়বেন।

৩। চোখে চোখ রেখে কথা বলুন
সাহিত্যে আছে চোখ মনের প্রতিচ্ছবি। কথাটি কিছুটা হলেও সত্যি। চোখের মাধ্যমে একজন মানুষের মনের অবস্থা অথবা মস্তিষ্কের অবস্থা বোঝা সম্ভব। একজন সমস্যাগ্রস্ত, হতাশাগ্রস্ত, অসৎ মানুষ চোখের দিকে তাকিয়ে কথা বলতে ভয় পাবে। আর এই কাজটি একজন আত্নবিশ্বাসী মানুষ খুব সহজে করে ফেলতে পারবেন। প্রথমদিকে কিছুটা অস্বস্তিকর মনে হলেও কিছুদিন অনুশীলন করার পর এই অভ্যাসটিও আপনার আয়ত্তে চলে আসবে।

৪। হাত দৃশ্যমান রাখুন
অনেকে কথা বলার সময় হাত কোথায় রাখবেন, কীভাবে রাখবেন বুঝতে পারেন না। বিশেষ করে নার্ভাস মানুষের ক্ষেত্রে এটি বেশি হয়। যার ফলশ্রুতিতে হাত আপনার পকেটের ভিতরে থাকে নয়তো ভাঁজ করে বুকের উপর। এই কাজটি করা আজই বন্ধ করুন। এটি প্রকাশ করে আপনার নার্ভাসনেস কিংবা আপনি কোন কিছু লুকাতে চাচ্ছেন। হাত সামনে নিয়ে আসুন। এমন কোন অঙ্গভঙ্গি করা থেকে বিরত থাকুন যা আত্নরক্ষামূলক ভঙ্গি প্রকাশ করে।

৫। আচরণকে স্বাভাবিক রাখুন
কিছু মানুষ আছে যারা কিছুটা নার্ভাস থাকেন অস্থির আচরণ করেন। আবার কিছু মানুষ খুব গম্ভীর থাকেন। এই দুই আচরণ থেকে বের হয়ে আসুন। কথা বলার সময় সহজ স্বাভাবিক আচরণ করুন। সহজ কিন্তু দৃঢ় আচরণ অন্যের উপর প্রভাব ফেলতে সাহায্য করবে।

৬। সোজা হয়ে বসুন
বসার ভঙ্গির মাঝে অনেককিছু প্রকাশ পায়। আপনি যদি কোন চাকরির সাক্ষাৎকারে চেয়ারে হেলান দিয়ে বসেন, এতে চাকরিদাতার মনে করতে পারেন আপনার চাকরিটির প্রয়োজন নেই। চাকরিদাতার কাছে আপনার গুরুত্ব কমে যাবে অনেকখানি। এমনটিই মনে করেন ক্যারিয়ার বিশেষজ্ঞ অ্যামান্ডা অগাস্টিন। তিনি আরোও বলেন “এটি আত্নবিশ্বাসহীনতা প্রকাশ করে। তিনি সোজাভাবে মাথা উঁচু করে বসার পরামর্শ দেন। তিনি বলেন “সোজা হয়ে বসুন, যা আপনার আত্নবিশ্বাস, বুদ্ধিমত্তা প্রকাশ করে”।

৭। আত্নবিশ্বাসের সাথে হ্যান্ডশেক করুন
কেউ “ডেড ফিস্ট” অথবা “ঠান্ডা হ্যান্ডশেক” পছন্দ করেন না। আন্তরিকতার সাথে হ্যান্ডশেক করুন। আশিষ অরোরা বলেন “ একটি দূর্বল হ্যান্ডশেক দূর্বল ব্যক্তিত্বের প্রকাশ”। চোখের দিকের তাকিয়ে মুখে হাসি নিয়ে আন্তরিকতার সাথে হ্যান্ডশেক করুন।

Googleplus Pint
Like - Dislike Votes 3 - Rating 3.3 of 10
Relatedআরও দেখুনঅন্যান্য ক্যাটাগরি

পাঠকের মন্তব্য (0)