JanaBD.ComLoginSign Up

শালুকের মতো আমিও খুব ডানপিটে : প্রাপ্তি!

বিবিধ বিনোদন 3rd Dec 2016 at 7:42pm 207
শালুকের মতো আমিও খুব ডানপিটে : প্রাপ্তি!

‘জি বাংলা’ টেলিভিশন চ্যানেলের মেগা ধারাবাহিক ‘এই ছেলেটা ভেলভেলেটা’র জনপ্রিয় চরিত্র শালুক। আসল নাম প্রাপ্তি চ্যাটার্জি। জনপ্রিয়তার সিঁড়ি ভেঙে এখন দুই বাংলার দর্শকের হৃদয়ে একটু একটু করে স্থান নিয়েছেন শালুকখ্যাত প্রাপ্তি।

নিজের ক্যারিয়ার নিয়ে প্রাপ্তি বললেন, ‘ছোট থেকেই অভিনয়ের বাসনা একটু একটু করে ডানা মেলছিল। তা ছাড়া ছোটবেলা থেকেই নাটক করতাম, নাচও শিখতাম। তবে টিভি পর্দায় সুযোগ ঘটে আমার মায়ের বন্ধু অভিনেত্রী অপরাজিতা আঢ্যর হাত ধরে। আমার আজ অভিনেত্রী হওয়ার পেছনে ১০০ শতাংশ কৃতিত্ব অপরাজিতা আন্টির। ২০০৭ সালে প্রথম অপরাজিতা আন্টির একটা প্রজেক্টে কাজ করার সুযোগ পাই।

তবে প্রথম প্রথম শুটিং করতে গিয়ে ভীষণ নার্ভাস ফিল করতাম। ডায়ালগ বলতে গিয়েও ঘাবড়ে যেতাম।’

‘এই ছেলেটা ভেলভেলেটা’ ধারাবাহিকে শালুক চরিত্রের সঙ্গে পর্দার বাইরের প্রাপ্তি চ্যাটার্জির যথেষ্ট মিল রয়েছে বলে অকপটে জানালেন। বললেন, ‘শালুকের মতো বাস্তবে আমিও খুব ডানপিটে। গাছে চড়তে, পুকুরে নামতে, সবার পেছনে লাগতে, ঠাট্টা-ইয়ার্কি করতে আমার বেশ লাগে। যে কারণে শালুক চরিত্র নিয়ে আমাকে আলাদা করে কিছু ভাবতে হয়নি।’

পরিবারে একা মেয়ে প্রাপ্তি। উচ্চ মাধ্যমিক অবধি পড়াশোনা করেই শুরু করেছেন অভিনয়। এখন বেড়ে চলেছে কাজের চাপ। বললেন, ‘কাজের জন্য পড়াশোনার সময় বের করাই এখন দুষ্কর হয়ে পড়েছে। এ বয়সেই ধীরে ধীরে সেলিব্রেটির তকমাও লাগতে চলেছে জীবনে। ফলে প্রেমটেম জীবনে এসেছে কি না তার উত্তরে একরাশ হেসে বললেন, ‘অনেক আগে স্কুল লাইফে প্রেম করতাম। সেসব এখন চুকে গেছে। এখন শুধু মন দিয়ে কাজটাই করছি।’

তবে অন্য আর পাঁচটা মেয়ের মতো প্রাপ্তির জীবনেও স্বপ্ন রয়েছে একজন স্বপ্ন পুরুষের। বললেন, ‘আমার স্বপ্নের পুরুষকে খুব ভালো হতে হবে। হতে হবে হাসিখুশিও। গম্ভীর ছেলে আমার একেবারেই পছন্দ নয়। জীবনে বিয়ে মানে বুঝি কম্প্যানিয়নশিপ। আর সংসার মানে স্যাক্রিফাইস সবাইকে করতে হয়। সেটা যেমন মেয়েদের ক্ষেত্রেও এবং তেমনি ছেলেদের ক্ষেত্রেও।’ এ ছাড়া প্রাপ্তির কাছে সংজ্ঞা হলো, ‘গুড কম্প্যানিয়নশিপ ইজ দ্য বেস অব এ গুড রিলেশনশিপ।’

শালুক চরিত্রের দৌলতে জীবনে এখন একটু একটু করে
পরিবর্তন ঘটছে। বললেন, “আগে আমার কত সময় ছিল। এখন একদম সময় পাই না। তা ছাড়া ধারাবাহিক ‘এই ছেলেটা ভেলভেলেটা’র দৌলতে অল্প অল্প করে লোকজন এখন আমাকে চিনতেও পারছেন।”

অভিনয়জগৎ ছাড়া নিজের একটা একান্ত ব্যক্তিজীবন রয়েছে প্রাপ্তির। সেই জীবনে রান্না করতে ভীষণ ভালোবাসেন তিনি।

নিজের রোজগারের টাকাতে শপিং করতেও ভালোবাসেন। আর ভীষণ রকম ভালোবাসেন পশুপাখিদের। বললেন, ‘আমার বাইশটা বিড়াল আছে। তার মধ্যে দশটা বিড়াল আমাদের বাড়িতেই থাকে।’

প্রাপ্তি চ্যাটার্জির প্রিয় অভিনেতা রণদীপ হুডা। প্রিয় অভিনেত্রী জুলিয়া রবার্টস। প্রিয় গায়ক এনরিকিউ। প্রিয় গায়িকা এডেল।

প্রিয় ফল কলা। প্রিয় ফুল যেকোনো আর্কিড। ভালোবাসেন ট্রাভেলিং করতে। অবসর সময়ে বই পড়ে আর সিনেমা দেখে কাটাতেই বেশি পছন্দ করেন।

নিজের সম্পর্কে সোজাসাপ্টাভাবে প্রাপ্তি জানিয়ে দিলেন, ‘আমি সব সময়ই সোজা কথা সোজাভাবে বলতে পছন্দ করি।

আমার পছন্দ-অপছন্দ সোজা মুখের ওপর বলে দিই। আমি নিজেও চাই, আমাকেও সবাই তাঁদের পছন্দ অপছন্দ সামনাসামনি জানিয়ে দিক।’

টিভিতে আজ জনপ্রিয় হয়ে উঠলেও আগামী দিনে কিন্তু বড় পর্দায় যাওয়ার বাসনা রয়েছে প্রাপ্তির। বললেন, ‘আগামী দিনে সিনেমায় ভালো কাজ পেলে অবশ্যই করব।’

Googleplus Pint
Noyon Khan
Manager
Like - Dislike Votes 6 - Rating 6.7 of 10
Relatedআরও দেখুনঅন্যান্য ক্যাটাগরি

পাঠকের মন্তব্য (0)