JanaBD.ComLoginSign Up

গোখরা সাপের কামড়ের পর কী হয়? দেখে নিন!

জানা অজানা 7th Dec 2016 at 2:36pm 789
গোখরা সাপের কামড়ের পর কী হয়? দেখে নিন!

যদিও কিছু সতর্কতামূলক পদক্ষেপ ও চিকিৎসাতে এ মৃত্যু রোধ করা সম্ভব। এক প্রতিবেদনে বিষয়টি জানিয়েছে বিজনেস ইনসাইডার।

ভারতীয় গোখরা সাপ সবচেয়ে বিপজ্জনক সাপের একটি। এ সাপের বিষ অত্যন্ত বিপজ্জনক। এটি মস্তিষ্ক ও হৃৎপিণ্ড অচল করে দেয়। আমাদের দেশেও পাওয়া যায় এ সাপ।

ভারতীয় গোখরা সাপটি প্রায় সাত ফুট লম্বা হয়। এর বিষ খুব দ্রুত কাজ শুরু করে। মূলত দুটি পর্যায়ে কাজ করে এ সাপের বিষ। প্রথম পর্যায়ে বিষের নিউরোটক্সিন দেহের নার্ভাস সিস্টেম অচল করে দেয়। দংশনের ১৫ মিনিটের মধ্যেই শুরু হয় এ বিষক্রিয়া। ক্ষেত্রবিশেষে দুই ঘণ্টাও লাগতে পারে।

এ প্রতিক্রিয়ায় দেহে চেতনা লুপ্ত হওয়ার প্রক্রিয়া দেখা যায়। দেহ অসাড় হয়ে পড়ে। কোনো কোনো সময় শ্বাস নেওয়াও কষ্টকর হয়ে পড়ে। যে স্থানে সাপ দংশন করে সেখানে ও আশপাশে র‌্যাশ, উঁচু হয়ে ফুলে যাওয়া ও রং পরিবর্তন হতে পারে।

এ ছাড়া সাপটির বিষে রয়েছে হৃৎস্পন্দন বন্ধ করার উপাদান। এ জন্য প্রথমে কিছুক্ষণ হৃৎস্পন্দন বেড়ে যায়। এরপর আবার কমে যায় এবং বন্ধ হয়ে যায়।

সাপটি অনেক সময় একাধিকবার দংশন করে। এতে বিষের মাত্রা বেশি হয়। ফলে রোগীকে বাঁচানো কঠিন হয়ে পড়ে। এ সাপের দংশনে মৃত্যুর হার বেশি হওয়ার অন্যতম কারণ এটি দিনরাত কার্যক্ষম থাকে। এ ছাড়া এটি জনবসতির আশপাশেই বাস করে।

সঠিকভাবে চিকিৎসা করা না হলে এ সাপের দংশনে অধিকাংশ সময়ই এক ঘণ্টার মধ্যেই মৃত্যু নিশ্চিত। তাই দ্রুত রোগীকে চিকিৎসা দেওয়া উচিত।

সাপের কামড়ের কিছু লক্ষণ হলো :
• ক্ষতস্থান থেকে রক্ত পড়া
• চামড়াতে সাপের দাঁতের দাগ এবং সেই জায়গাটা ফুলে যাওয়া
• দংশনের জায়গাতে তীব্র যন্ত্রণা
• পেট খারাপ হওয়া
• জ্বালা ভাব
• সংজ্ঞাহীন হয়ে যাওয়া
• মাথা ঘোরা
• চোখে ঝাপসা দেখা
• অত্যাধিক ঘাম হওয়া
• গলা শুকিয়ে যাওয়া
• জ্বর
• বমি ভাব বা বমি হওয়া
• অসাড়তা বা ঝিঁ-ঝিঁ ধরা
• নাড়ির গতি বেড়ে যাওয়া

সাপ কামড়ালে কী করবেন :
সাপ কামড়েছে জানলে দ্রুত হাসপাতালে বা ডাক্তারের কাছে যেতে হবে।

যতক্ষণ চিকিৎসার বন্দোবস্ত না হচ্ছে ততক্ষণ যা করবেন.....
--সাবান-পানি দিয়ে ক্ষতস্থানটা ধুয়ে ফেলা
--শরীরের যে অংশে সাপ কমড়েছে সেটা যতটা সম্ভব স্থির করে রাখা।
--ক্ষতস্থানটা পরিষ্কার কাপড় দিয়ে ঢেকে রাখা।
--সাপ কামড়ানোর পর যদি ৩০ মিনিটের মধ্যে কোনো চিকিৎসকের সঙ্গে যোগাযোগ সম্ভব না হয়, তাহলে আমেরিকান রেড ক্রসের উপদেশ হলো :
সাপ যেখানে কামড়েছে তার দুই থেকে চার ইঞ্চি উঁচুতে (অর্থাৎ হৃদ্পিণ্ডের দিকে) একটা জড়ানো ব্যাণ্ডেজ বাঁধা। ব্যাণ্ডেজটা খুব কষে বাঁধা যেন না হয়, সে ক্ষেত্রে রক্তচলাচল বন্ধ হয়ে যাবে। মোটামুটিভাবে ব্যাণ্ডেজের তলা দিয়ে যাতে একটা আঙুল গলিয়ে দেওয়া যায়- সেটা দেখতে হবে। এবার ক্ষতের ওপর কোনো 'সাক্শন' যন্ত্র সাবধানে বসিয়ে বিষটাকে টেনে নেওয়ার চেষ্টা করা যেতে পারে। এ ছাড়া চিকিৎসকের কাছে নেওয়ারও ব্যবস্থা করতে হবে।

Googleplus Pint
Noyon Khan
Manager
Like - Dislike Votes 4 - Rating 5 of 10
Relatedআরও দেখুনঅন্যান্য ক্যাটাগরি

পাঠকের মন্তব্য (0)