JanaBD.ComLoginSign Up

Internet.Org দিয়ে ফ্রিতে ব্রাউজ করুন আমাদের সাইট :) Search করুন , "জানাবিডি ডট কম" পেয়ে যাবেন ।

ছেলের চুলের ছাঁটে চাকরি গেল বাবার!

সাধারন অন্যরকম খবর 11th Dec 2016 at 10:14pm 565
ছেলের চুলের ছাঁটে চাকরি গেল বাবার!

বড়দিনের বাকি আর মাত্র তিন সপ্তাহ। এমন একটা সময়ে চাকরিচ্যুত হলেন এক ব্যক্তি। আর চাকরিচ্যুতির কারণটিও অতি বিচিত্র। নিজের ছেলের চুলে বিশেষ ধরনের ছাঁট দেওয়ায় ওই ব্যক্তিকে চাকরিচ্যুত করা হয়েছে।

ঘটনাটি ঘটেছে উত্তর লন্ডনে। ৩৭ বছর বয়সী গুদাম শ্রমিক ক্রেইগ ইমানুয়েলকে জানানো হয়, চুলের ছাঁটের কারণে তাঁর ছেলেকে স্কুল থেকে বাড়িতে পাঠিয়ে দেওয়ার ঘটনায় তাঁকে চাকরিচ্যুত করা হলো।

ক্রেইগ ইমানুয়েলের সাত বছর বয়সী ছেলে ম্যাকেঞ্জি উইলসডেনের সেন্ট ম্যারিস সি অব প্রাইমারি স্কুলের শিক্ষার্থী।

পরিবারের দাবি, গত সোমবার ম্যাকেঞ্জিকে স্কুল থেকে বাড়ি পাঠিয়ে দেওয়া হয়। কারণ হিসেবে স্কুল কর্তৃপক্ষ জানায়, শিশুটির মাথার তিনদিকে তিন ধরনের ছাঁট দেওয়া হয়েছে।

মাথার একাংশে চুল চেঁছে ফেলে একটি লাইন করা হয়েছে। যা সঠিক নয় এবং অন্য শিশুদের বিভ্রান্ত করবে।

এই চুল বড় হয়ে স্বাভাবিক অবস্থায় ফিরে না যাওয়া পর্যন্ত ম্যাকেঞ্জিকে স্কুলে প্রবেশ করতে দেওয়া হবে না বলেও জানিয়েছে কর্তৃপক্ষ। ক্রেইগ জানান, এই কথা নিজের কর্মক্ষেত্রে জানানোর পর পরই তাঁর হাতে ধরিয়ে দেওয়া হয় অব্যাহতিপত্র।

অথচ মাত্র পাঁচদিন আগেই জাপানের স্টেশনারি সামগ্রী প্রস্তুতকারী প্রতিষ্ঠান মুজিতে শ্রমিক হিসেবে যোগ দিয়েছিলেন ক্রেইগ। চার সন্তানের জনক এই ব্যক্তি জানান, তাঁর সঙ্গে অন্যায় আচরণ করা হয়েছে। ক্রেইগের কর্তাব্যক্তি তাঁকে জানিয়েছেন, বিষয়টি নিয়ে তিনি হতাশ। তবে কাজটি বেশ ভালো ছিল বলেও আফসোস করেন ক্রেইগ।

যে চুলের ছাঁট নিয়ে এত তোলপাড় সেটি সম্পর্কে ম্যাকেঞ্জির মা লুইস জানান, লন্ডন অ্যাথলেটিক আন্ডার সেভেন এ স্কোয়াডের হয়ে ফুটবল খেলে তাঁর ছেলে। আর্সেনালের একজন প্রিয় খেলোয়াড়ের সাথে দেখা করার জন্যই এভাবে চুল কেটেছিল সে। কিন্তু সেটিই কাল হয়েছে ম্যাকেঞ্জির জন্য। এখন চুল বড় না হওয়া পর্যন্ত স্কুলে যেতে পারবে না সে।

তবে স্কুলটির গাইডলাইনে কোথাও এই ধরনের চুলের কাটের বিষয়ে নিষেধাজ্ঞা নেই বলে দাবি লুইসের। তিনি বলেন, সেখানে বলা আছে, চুলের ছাঁট এক ধরনের হতে হবে, আঁকাবাঁকা ছাঁট হওয়া চলবে না। গত গ্রীষ্মেও ম্যাকেঞ্জি এভাবে চুল কাটিয়েছিল জানিয়ে তিনি বলেন, তখন কোনো সমস্যা হয়নি। যদি তার আচার ব্যবহারের কারণে তাকে স্কুল থেকে পাঠিয়ে দেওয়া হতো তাহলেও মেনে নিতে পারতেন, কিন্তু সামান্য চুলের ছাঁটের জন্য ছেলেকে বাসায় বসিয়ে রাখার বিষয়টি মোটেও মানতে পারছেন না এই মা।

Googleplus Pint
Noyon Khan
Manager
Like - Dislike Votes 2 - Rating 5 of 10
Relatedআরও দেখুনঅন্যান্য ক্যাটাগরি

পাঠকের মন্তব্য (0)