JanaBD.ComLoginSign Up

Internet.Org দিয়ে ফ্রিতে ব্রাউজ করুন আমাদের সাইট :) Search করুন , "জানাবিডি ডট কম" পেয়ে যাবেন ।

সুন্দর চুলের যত্নে কিছু টিপস

রূপচর্চা/বিউটি-টিপস 4th Jan 2017 at 9:43am 411
সুন্দর চুলের যত্নে কিছু টিপস

মাথা ভর্তি সুন্দর ঘন চুলের স্বপ্ন কার নেই? চুল ছাড়া যে সৌন্দর্যের প্রায় পুরোটাই মাটি। কম, বেশি, সব চুলেরই যত্নের প্রয়োজন আলাদাভাবে। চুলের যত্ন সম্পর্কে কিছু টিপস।

চুলের গোড়া বা বেস
সুন্দর চুলের পূর্বশর্ত হলো মাথার ত্বক হতে হবে সুস্থ৷ যত্নের অভাবে মাথার ত্বক হতে পারে শুষ্ক অথবা খুশকি৷ তবে মাথায় ম্যাসাজ করার মধ্য দিয়ে সঠিকভাবে রক্ত চলাচল করলে মাথার গ্রন্থিগুলোকে সচল করে ফেটে যাওয়া বা রুক্ষ চুল ঠিক করা সম্ভব৷ মাথার ত্বকের সমস্যায় ডাক্তারের পরামর্শ নিয়ে চুলকে আবার চকচকে করা যায়৷

চুলে লেবুর রস
চুলে শ্যাম্পু করার আগে ভালো করে ব্রাশ করে নিলে সুবিধা হয়৷ কারণ তাহলে খুব বেশি শ্যাম্পুর প্রয়োজন হয় না৷ তবে জরুরি হচ্ছে, যথেষ্ট পানি দিয়ে চুল ধুয়ে ফেলতে হবে৷ তবে খুব বেশি গরম পানি দিয়ে নয়, এতে চুল আরো খারাপ হয়৷ সবশেষে ঠান্ডা পানি দিয়ে ধোয়ার সময় সামান্য লেবুর রস মিশিয়ে নিলে আরো ভালো হয়৷

চুল ধোয়া
প্রতিবারই ধোয়ার সময় চুলের জন্য প্রয়োজন কন্ডিশনার কারণ তা প্রতিরক্ষামূলক আবরণের কাজ করে৷ এতে চুল ভালো করে আচড়ানো যায় এবং চুলে বাড়তি চাকচিক্য আনে৷ তবে ভেজা চুল একটু ধীরে যত্ন নিয়ে ব্রাশ করতে হবে৷

ঠিকমতো শুকাতে হবে
ভেজা চুল কখনো টাওয়েল দিয়ে ঘষে ঘষে মুছবেন না, কারণ এতে চুল রুক্ষ হয়ে যায়৷ যা ভেজা চুল বেঁধে রাখার ক্ষেত্রেও প্রযোজ্য, কারণে এতে বন্ধ হয়ে থাকায় চুল সংবেদনশীল হয়ে যায়৷ সবচেয়ে ভালো, শুধু বাতাস বা হেয়ার ড্রায়ারের সবচেয়ে নীচু তাপে চুল শুকালে৷

বিশেষ যত্ন
মাঝে মাঝে চুলে ডিমের সাথে লেবুর রস মিশিয়ে কিছুক্ষণ রেখে দিয়ে ফেলবেন৷ বা চুলে নারকেল তেল দিয়ে ঘণ্টা দুয়েক রেখে হালকা শ্যাম্পু করে নেবেন, এতে চুল আবার তার চাকচিক্য ফিরে পাবে৷ কিংবা অ্যাভোকাডো বেটে সেটাও মিনিট কুড়ি রাখতে পারেন৷ বেশিক্ষণ রোদে থাকা বা বাতাসে ঘোরাফেরা করার পর করলে তা বেশি উপকারে আসে৷

বাড়তি যত্ন
ঘন ঘন চুল রং করা, বা বেশি গরম তাপে চুল শুকালে চুল রুক্ষ হয়ে যায় যে চুল দেখতে অসুস্থ বলে মনে হয়৷ চুলের আগা ভাঙা বন্ধ করতে নিয়মিত চুলের আগায় তেল এবং চুলের ক্রিম ব্যবহার করলে তা ঠেকানো সম্ভব৷

কিভাবে চুল আচড়াবেন বা ব্রাশ করবেন?
চুলের যত্নে প্রয়োজন ভালো ব্রাশ এবং চিরুনি৷ চুলের গোড়ার তেল বা ফ্যাট বের করতে প্রয়োজন ছবির মতো মোটা দাঁতের ব্রাশ, তা না হলে চিকন ব্রাশ চুলের গোড়ায় ক্ষত বা ব্যাথা হতে পারে৷ চিরুনির ব্যাপারেও তা লক্ষ্য রাখা প্রয়োজন৷ তাছাড়াও ব্রাশ এবং চিরুনি জীবাণুমুক্ত রাখার জন্য নিয়মিত শ্যাম্পু দিয়ে পরিষ্কার করতে হবে৷

চুলের রং
যাঁরা চুল রং করেন, তাঁদের চুলের জন্য আরো বেশি যত্ন প্রয়োজন৷ কারণ রং করার কারণে চুল রুক্ষ হয়৷ রং লাগানোর পর মাথার ত্বকের জন্য ‘প্যাক’ লাগানো জরুরি৷ তবে তিলের তেল চুল শুষ্ক ও রুক্ষ হওয়া থেকে রক্ষা করে৷ রং করা চুলে প্রাকৃতিক উপায়ে তৈরি শ্যাম্পু এবং কন্ডিশনার ব্যবহার করলে চুলের চকচকে আভা বজায় থাকে৷

চুলের যত্নে চাই স্বাস্থ্যকর খাবার
এক ঘেয়েমি খাবার, ভিটামিন ও মিনারেলের অভাবে চুলের চাকচিক্য নষ্ট হয়ে যায়৷ সুন্দর চুলের জন্য প্রয়োজন, আয়রন, বিয়োটিন, জিঙ্ক, ভিটামিন বি-১৷ যা থেকে এ সব পাবেন সেগুলো হচ্ছে তাজা ফলমূল, সবুজ শাক-পাতা, দুধ, শস্যদানা, মাছ, মুরগি ইত্যাদি৷

স্ট্রেস বা চাপ দূর করে-ওয়েলনেস
চাপ বেশি হলে স্ট্রেস হরমোন বেড়ে যায়, যা চুলের গোড়ার সংক্রমণ পর্যন্ত গড়াতে পারে৷ যার ফলে চুল পড়া বা ক্লান্ত লাগতে পারে৷ তাই চুলের সৌন্দর্য ও স্বাস্থ্য ঠিক রাখতে চাপ এড়িয়ে যথেষ্ট বিশ্রাম প্রয়োজন৷ তাছাড়াও শরীরে আয়রন, জিঙ্ক কিংবা থাইরয়েড হরমোনের ভারসাম্যের সমস্যা থেকেও চুল পড়তে পারে৷

Googleplus Pint
Like - Dislike Votes 12 - Rating 2.5 of 10
Relatedআরও দেখুনঅন্যান্য ক্যাটাগরি

পাঠকের মন্তব্য (0)