JanaBD.ComLoginSign Up

রাস্তা অবরুদ্ধ, ছেলেকে বাঁচাতে পারলেন না বাবা!

আন্তর্জাতিক 6th Jan 2017 at 8:56am 99
রাস্তা অবরুদ্ধ, ছেলেকে বাঁচাতে পারলেন না বাবা!

প্রথমে বাসে। পরে অটোতে। তার পর কিছুটা হেঁটে। শেষে পুলিশের গাড়িতে আরামবাগ হাসপাতালে পৌঁছেও নিজের এক বছরের ছেলেকে বাঁচাতে পারলেন না আরামবাগের বেড়াবেড়ি গ্রামের এক ব্যবসায়ী। বাসে যে পথ যেতে ৪৫ মিনিট লাগে, বুধবার ভারতের পশ্চিম বাংলায় তৃণমূলের অবরোধের জেরে ছেলেকে কোলে নিয়ে সেই পথ পাড়ি দিতে তার লেগে যায় দুই ঘণ্টার বেশি! হাসপাতালে পৌঁছানোর পর শিশুটিকে আর চিকিৎসা দেয়ার সুযোগ পাননি চিকিৎসকরা।

তারা মৃত ঘোষণা করেন। শিশুটির পরিবারের পক্ষ থেকে কোথাও কোনো অভিযোগ দায়ের করা হয়নি। তার বাবা বৃন্দাবন প্রামাণিকের আক্ষেপ, ‘আমার একমাত্র ছেলেটা জ্বর-সর্দি-হাঁপানিতে ভুগছিল। অবরোধে আটকে না পড়ে ঠিক সময়ে হাসপাতালে নিয়ে যেতে পারলে হয়তো ওকে বাঁচাতে পারতাম।’

ঘটনাটি দুঃখজনক বলে মেনে নিয়েছেন তৃণমূলের আরামবাগ ব্লক সভাপতি স্বপন নন্দী। বৃহস্পতিবার বিকেলে আরামবাগ লিংক রোডে ওই অবরোধে তিনিই নেতৃত্ব দিচ্ছিলেন। তার দাবি, ‘শুধু আমাদের অবরোধের জন্যই নয়, রাস্তার একদিক সারানো হচ্ছিল বলে গাড়ি চলাচল ব্যাহত হয়। ঘটনাটির খোঁজ নিচ্ছি।’ পশ্চিমবাংলার ক্ষমতাসীন দল তৃণমূলের সাংসদ সুদীপ বন্দ্যোপাধ্যায়কে গ্রেফতারের প্রতিবাদে বৃহস্পতিবার সকাল থেকেই আরামবাগ লিঙ্ক রোডসহ গুরুত্বপূর্ণ রাস্তা বন্ধ করে দেন তৃণমূলের কর্মী-সমর্থকেরা। এর জেরে সাধারণ মানুষ নাকাল হয়ে পড়ে। সব রাস্তাতেই যান চলাচল থমকে যায় দীর্ঘ সময়ের জন্য।

বৃন্দাবন যখন ছেলেকে নিয়ে হাসপাতালে উদ্দেশে বের হন, তখন বিকেল ৩টা। প্রথমে বাসে উঠলেও ধীরগতি দেখে প্রমাদ গুনতে থাকেন তিনি। আরামবাগ লিংক রোডের গৌরহাটি মোড়ে বাস থেকে নেমে অটোতে চড়েন। কিন্তু সামনে গাড়ির লম্বা লাইন থাকায় সেই অটোও কিছুটা এগিয়ে থেমে যায়। এর পরে ছেলেকে নিয়ে হাঁটতে শুরু করেন বৃন্দাবন। রাস্তার এক ধারে গাড়ি নিয়ে দাঁড়িয়েছিলেন আইসি (আরামবাগ) অলোকরঞ্জন মুন্সি। বৃন্দাবন তার কাছে গিয়ে সাহায্য চান।

আইসি তাকে গাড়িতে তুলে নেন। সাইরেন বাজিয়ে কোনো মতে রাস্তা করে আইসির গাড়ি যখন হাসপাতালে পৌঁছায়, তখন ঘড়ির কাটা সোয়া পাঁচটায়। এত চেষ্টা করেও ছেলেকে বাঁচাতে পারেননি বৃন্দাবন। আনন্দবাজার।

Googleplus Pint
Noyon Khan
Manager
Like - Dislike Votes 5 - Rating 8 of 10
Relatedআরও দেখুনঅন্যান্য ক্যাটাগরি

পাঠকের মন্তব্য (0)