JanaBD.ComLoginSign Up

জানা হবে অনেক কিছু, চালু হয়েছে জানাবিডি (JanaBD) এন্ডয়েড এপস । বিস্তারিত জানুন..
Internet.Org দিয়ে ব্রাউজ করুন আমাদের সাইট ফ্রী , "জানাবিডি ডট কম"

শততম টেস্টে সেঞ্চুরি হাঁকানো ৮ ক্রিকেটার

ক্রিকেট দুনিয়া 13th Jan 2017 at 8:37am 431
শততম টেস্টে সেঞ্চুরি হাঁকানো ৮ ক্রিকেটার

১৯৬৮ সাল থেকে ২০১৭ এরে মধ্যে কেটে গেছে ৪৯ বছর। ক্রিকেট ইতিহাস অনেক উত্থান পত্তন ঘটেছে। কেউ রানের ফল্গুধারা ছুটিয়েছেন। আবার কেউ বল হাতে ভেল্কি দেখিয়েছেন । কেউ গড়েছেন সর্বোচ্চ রানের রেকর্ড। কেউ আবার নিজেকে নিয়ে গেছেন সর্বোচ্চ উইকেট শিকারিদের তালিকায়। কেউ কেউ মাইলফলকের দিনেই গড়েছেন অনন্য মাইলফলক।

আজ ১২ জানুয়ারি টেস্ট ক্রিকেটের ইতিহাসের পাতায় নতুন একটি সংযোজন ঘটেছে। অনন্য এক কীর্তির ভাগিদার হয়েছেন দক্ষিণ আফ্রিকার ক্রিকেটার হাশিম আমলা। তিনি যে কীর্তি গড়েছেন তা টেস্ট ক্রিকেটের ইতিহাসে তার আগে মাত্র সাতজন করেছিলেন। বলছি, শততম টেস্ট ম্যাচে সেঞ্চুরি হাঁকানো ক্রিকেটারদের কথা। শততম টেস্ট ম্যাচে সেঞ্চুরি হাঁকানো ৮ ক্রিকেটারদের নিয়ে এই আয়োজন।

কলিন কাউড্রে : ১৯৬৮ সালের ১১ জুলাই নিজের শততম টেস্ট ম্যাচে অনন্য মাইলফলক স্পর্শ করেন ইংলিশ ব্যাটসম্যান কলিন কাউড্রে। এজবাস্টনে নিজের শততম টেস্টে সেঞ্চুরি হাঁকিয়ে ক্রিকেটে ইতিহাসে নতুন এক রেকর্ডের জন্ম দিয়েছিলেন। অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে নিজের শততম ম্যাচে ১০৪ রানের নান্দনিক ইনিংস উপহার দেন কলিন কাউড্রে।

জাভেদ মিঁয়াদাদ : কলিন কাউড্রের গড়া রেকর্ডে তিন বছর পর ভাগ বসান পাকিস্তানের ‘বড় মিয়া’ খ্যাত জাভেদ মিঁয়াদাদ। ১৯৮৯ সালের ১ ডিসেম্বর লাহোরে ঘরের মাঠে চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী ভারতের বিপক্ষে ১৪৫ রানের ইনিংস খেলেন তিনি।

গর্ডন গ্রিনিজ : দ্বিতীয় ব্যাটসম্যান হিসেবে কাউড্রের পাশে বেশিদিন এককভাবে থাকতে পারেননি জাভেদ মিঁয়াদাদ। মাত্র ৫ মাস পর কাউড্রে এবং মিঁয়াদাদের পাশে বসেন ক্যারিবিয়ান কিংবদন্তি গর্ডন গ্রিনিজ। ১৯৯০ সালের ১২ এপ্রিল ইংল্যান্ডের বিপক্ষে শততম টেস্টে সেঞ্চুরি হাঁকান ওয়েস্ট ইন্ডিজ কিংবদন্তি। ইংল্যান্ডের বিপক্ষে অ্যান্টিগুয়া টেস্টে ১৪৯ রানের ইনিংস খেলেন গ্রিনিজ।

অ্যালেক স্টুয়ার্ট : ঊনবিংশ শতাব্দীতে শততম টেস্ট ম্যাচে সেঞ্চুরির সংখ্যা ছিল উপরের তিনটি। কিন্তু এর ঠিক দশ বছর পর এবং বিংশ শতাব্দীর শুরুতেই পুরাতন রেকর্ড নতুন করে আলোচনায় আনেন ইংল্যান্ডের ব্যাটসম্যান অ্যালেক স্টুয়ার্ট। ২০০০ সালের ৩ আগস্ট ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে অ্যান্টিগুয়া টেস্টে নিজের শততম টেস্ট ম্যাচে সেঞ্চুরি হাঁকান স্টুয়ার্ট। আউট হওয়ার আগে খেলেন ১০৫ রানের ইনিংস।

ইনজামাম-উল-হক : ১৯৮৯ সালের পর দ্বিতীয় পাকিস্তানি ব্যাটসম্যান হিসেবে শততম টেস্ট ম্যাচে সেঞ্চুরি হাঁকিয়ে আবারও আলোচনায় আসেন ইনজামাম-উল-হক। মজার বিষয় হচ্ছে মিঁয়াদাদ এবং ইনজি দুজনেই তাদের শততম ম্যাচ ভারতের বিপক্ষে খেলেন এবং দুজনেই সেঞ্চুরি হাঁকিয়ে অনন্য নজির গড়েন। ২০০৫ সালের ২৪ মার্চ বেঙ্গালুরু টেস্টে ১৮৪ রানের ইনিংস উপহার দেন ইনজি। যা আজ পর্যন্ত শততম ম্যাচ টেস্ট সেঞ্চুরিয়ানদের গড়া সর্বোচ্চ রানের স্কোর।

রিকি পন্টিং : ইনজামাম-উল-হকের গড়া শততম ম্যাচের টেস্ট সেঞ্চুরির পরের বছরে নতুন করে রেকর্ডে নাম লেখান অস্ট্রেলিয়ান সাবেক সফল অধিনায়ক রিকি পন্টিং। আগের পাঁচ জনের মত শততম ম্যাচে সেঞ্চুরি করলেও সবার থেকে আলাদা হয়ে আছেন পন্টিং। ১ জানুয়ারি ২০০৬ সালে ঘরের মাঠে সিডনি টেস্টে উভয় ইনিংসে সেঞ্চুরি করার গৌরব অর্জন করেন অস্ট্রেলিয়ার তিনবারের বিশ্বকাপ জয়ী তারকা। রিকি পন্টিং দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে প্রথম ইনিংসে ১২০ এবং দ্বিতীয় ইনিংসে অপরাজিত ১৪৩ রান করেন।

গ্রায়েম স্মিথ : অস্ট্রেলিয়ার অধিনায়ক পন্টিংয়ের সাড়ে ছয় বছর পর নিজের শততম ম্যাচে সেঞ্চুরি করার গৌরব অর্জন করেন গ্রায়েম স্মিথ। ২০১২ সালের ১৯ জুলাই ইংল্যান্ডের বিপক্ষে ওভাল টেস্টে ১৩১ রানের ইনিংস উপহার দেন দক্ষিণ আফ্রিকা দলের সাবেক অধিনায়ক।

হাশিম আমলা : স্বদেশী খেলোয়াড় গ্রায়েম স্মিথের ৫ বছর পর পুরাতন রেকর্ড আবারও আলোচনায় নিয়ে আসেন হাশিম আমলা। রানের খরায় ভুগতে থাকা আমলা শততম ম্যাচে সেঞ্চুরি হাঁকিয়ে অষ্টম ক্রিকেটার হিসেবে অনন্য নজির গড়লেন। শ্রীলংকার বিপক্ষে তিন ম্যাচ টেস্ট সিরিজের ‍তৃতীয় এবং শেষ টেস্টে ওয়ান ডাউনে ব্যাটিংয়ে নামেন হাশিম আমলা। নিজের প্রতি আস্থা অবিচল রেখে তুলে নেন নিজের টেস্ট ক্যারিয়ারের ২৬তম সেঞ্চুরি। শ্রীলংকান স্পিনার রঙ্গনা হেরাথের বলে বাউন্ডারি হাঁকিয়ে সেঞ্চুরি উদযাপন করেন আমলা। তার ১৬৭ বলের ইনিংসে ১৪টি চারের মার ছিল।

২০১৭ সালের ১২ জানুয়ারি জোহানেসবার্গের ভক্ত সমর্থক স্বাক্ষী হয়ে রইল আমলার শততম ম্যাচের সেঞ্চুরিতে। তবে ম্যাচের প্রথম দিন শেষে ১২৫ রানে অপরাজিত রয়েছেন আমলা। আজ শুক্রবার দ্বিতীয় দিনে আবারও ব্যাট হাতে নামবেন তিনি।

এদিকে দ্বিতীয় দিনে হাশিম আমলার নজর নিশ্চয় রইবে শততম ম্যাচে সর্বোচ্চ রানের ইনিংসের দিকে। কেননা আর মাত্র ৬০ রান করতে পারলেই পাকিস্তানের সাবেক অধিনায়ক ইনজামাম-উল-হককে ছাপিয়ে যাওয়ার সুযোগ রয়েছে আমলার সামনে।

- রাইজিংবিডি


জানা হবে অনেক কিছু, চালু হয়েছে জানাবিডি (JanaBD) এন্ডয়েড এপস । বিস্তারিত জানুন..

Googleplus Pint
Mizu Ahmed
Manager
Like - Dislike Votes 9 - Rating 4.4 of 10
Relatedআরও দেখুনঅন্যান্য ক্যাটাগরি

পাঠকের মন্তব্য (0)