JanaBD.ComLoginSign Up
জানা হবে অনেক কিছু, চালু হয়েছে জানাবিডি (JanaBD) এন্ডয়েড এপস । বিস্তারিত জানুন..
Internet.Org দিয়ে ব্রাউজ করুন আমাদের সাইট ফ্রী , "JanaBD.Com"

জেনে নিন কলার আশ্চার্যজনক উপকারের কথা

ফলের যত গুন 14th Mar 2017 at 12:14pm 695
জেনে নিন কলার আশ্চার্যজনক উপকারের কথা

আপনি কি কলা খেতে ভালবাসেন? যদি বাসেন তবে এই লেখা পড়ার পর আপনার ভালবাসা বাড়বেই কমবে না। আর যদি না বাসেন, তবে ভালবাসতে শুরু করবেন কিনা জানি না, তবে হ্যাঁ, কলার প্রতি আপনার দৃষ্টিভঙ্গি বদলাতে বাধ্য। মুহূর্তের মধ্যে এনার্জি পেতে কলার জুরি মেলা ভার।

আসুন জেনে নেই কলার কিছু গুনাগুণ:

১। অবসাদঃঅবসাদে ভোগা কিছু মানুষের উপর পরীক্ষা চালিয়ে দেখা গিয়েছে কলা খাবার পর ওই সব মানুষ ভাল বোধ করেন। কলার মধ্যে থাকে ট্রিপটোফ্যান প্রোটিন যা মানুষের দেহে সিরোটোনিন হরমোন তৈরি করে। সিরোটোনিন হরমোন অফ হ্যাপিনেস নামে পরিচিত। শরীরে এই হরমোনের মাত্রা বাড়লে মানুষের মুড ভাল থাকে। কলার মধ্যে থাকা ভিটামিন বি৬ শরীরে গ্লুকোজের সামঞ্জস্য বজায় রেখে মুড ঠিক রাখতে সহায়তা করে।

২। অ্যানিমিয়াঃকলার মধ্য প্রচুর পরিমানে অয়ারন থাকে, যা রক্তে হিমোগ্লোবিন উৎপাদনে সাহায্য করে। ফলে অ্যানিমিয়া হবার সম্ভাবনা কমে যায়। এমনকি অ্যানিমিয়া সারাতেও সাহায্য করে কলা।

৩। উচ্চ রক্তচাপঃকলার মধ্যে পটাশিয়ামের মাত্রা অনেক বেশি, তবে লবন এর মাত্রা কম থাকায় উচ্চ রক্তচাপ রুখতে সাহায্য করে কলা। কলার এই গুনের কথা মাথায় রেখে স্ট্রোক ও উচ্চ রক্তচাপের ওষুধে কলার সুপারিশ করা হয়েছে।

৪। মস্তিষ্কঃইংল্যান্ডের টুইকেনহ্যাম স্কুলের ২০০ জন স্টুডেন্ট এর উপর ১ বছর পরীক্ষা চালানো হয়। পরীক্ষার আগে তাদেরকে ব্রেকফাস্ট ও লাঞ্চে কলা খাওয়ানো হয়। কলার মধ্যে পটাশিয়াম থাকায় তাদের মনসংযোগ বাড়ায় ফলে অন্য স্টুডেন্টদের থেকে পরীক্ষায় ভালো রেজাল্ট করেছিল ওই ২০০ জন স্টুডেন্ট।

৫। হ্যাংওভারঃ রাতে অতিরিক্ত মদ্যপানের হ্যাংওভার কাটাতে ব্যানানা মিল্কশেকের কোন তুলনা নেই। মিল্কশেকের সাথে ১ চামচ মধু মিশিয়ে নিলে ভাল হত। কারন কলা শরীরে অস্বস্তি কমায়,দুধ পেট ঠান্ডা করে আর মধু রক্তে শর্করার মাত্রা বজায় রাখে। ফলে অম্বলের হাত থেকেও রেহাই পায় শরীর।

৬। মশার কামড়ঃ মশার কামড়ে ফুলে ও লাল হয়ে ওঠা ত্বকের যত্ন নিতে ক্রিম বা অ্যান্টিসেপটিক ব্যবহার করার আগে কলার খোসা ঘষুন ত্বকের ফুলে ওঠা অংশে।

৭। স্নায়ুঃ কলাতে প্রচুর পরিমানে ভিটামিন বি থাকে যা স্নায়ুকে শান্ত করে। কার্বোহাইড্রেটে পরিপূর্ণ হওয়ায় কলা রক্তে শর্করার মাত্রা ঠিক রেখে স্নায়বিক চাপ কমাতে সাহায্য করে।

৮। তাপমাত্রা নিয়ন্ত্রণঃ অনেক দেশে শরীরের তাপমাত্রা নিয়ন্ত্রণ করতে কলা ব্যবহার করা হয়। অন্তঃসত্ত্বা মহিলাদের জ্বর হলে ঔষধ এর পরিবর্তে কলা খাওয়ানো হয়। থাইল্যান্ডে গর্ভস্থ সন্তানের শরীরের তাপমাত্রা নিয়ন্ত্রণে রাখতে গর্ভবতী মায়েদের মধ্যে কলা খাওয়ার প্রচলন রয়েছে।

সূত্রঃ জিনিউজ।

জানা হবে অনেক কিছু, চালু হয়েছে জানাবিডি (JanaBD) এন্ডয়েড এপস । বিস্তারিত জানুন..

Googleplus Pint
Mizu Ahmed
Manager
Like - Dislike Votes 30 - Rating 5.3 of 10
Relatedআরও দেখুনঅন্যান্য ক্যাটাগরি

পাঠকের মন্তব্য (0)