JanaBD.ComLoginSign Up
৫০০০৳ নগদ পুরস্কার স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষ্যে UC Browser নিয়ে এসেছে ! দেখে নিন আপনিও কিভাবে পেতে পারেন ।

এই ১০টি স্থান ভ্রমণই গোটা কলকাতার মজা

দেখা হয় নাই 14th Mar 2017 at 6:05pm 273
এই ১০টি স্থান ভ্রমণই গোটা কলকাতার মজা

ঘোরাঘুরির জন্য দারুণ এক স্থান কলকাতা। পুরনো এ শহরে ছড়িয়ে রয়েছে ইতিহাস আর ঐতিহ্য। কেনাকাটা, দর্শনীয় স্থান, ভোজনরসিকদের জন্য মুখরোচক খাওয়ার স্থান সবই রয়েছে এখানে। জেনে নিন, কলকাতার এমন কয়েকটি স্থানের কথা যেখানে না গেলেই নয়।

১. কলেজ স্ট্রিট
যদি বইপড়ুয়া হয়ে থাকেন তবে এটাই আপনার তীর্থস্থান। পাঠ্যপুস্তক থেকে শুরু করে বেস্টসেলার সবই মিলবে এখানে। ঝকঝকে নতুন বই থেকে শুরু করে পুরনো বই সবই মেলে। অনেক বইয়ের বিরল সংস্করণও পাওয়া যায় এখানে।

২. কালিঘাট কালি টেম্পল
তীর্থযাত্রীদের জন্য অন্যতম সেরা স্থান। দর্শনীয় তো বটেই। এই টেম্পলটি তৈরি হয়ে উনবিংশ শতকে। দেবতার জন্য ভক্তিমূলক বাক্য লেখা রয়েছে যা ১৫ শ ও ১৭ শ শতকের। প্রাচীন ঐতিহ্যের নিদর্শন দেখতে সেখানেই যেতে হবে।

৩. নিউ মার্কেট
এটা হগস মার্কেট নামেও পরিচিত। এটাই কলকাতার সবচেয়ে পুরনো এবং বিখ্যাত বাজার। এতে ২ হাজার দোকান রয়েছে। দরদাম করেই পণ্য কেনাকাটা করার সুযোগ মিলবে।

৪. নিজামস
ভারতীয় স্ট্রিট ফুডের সেরাটা মিলবে এখানে। বিশেষ করে এখানকার কাঠি রোল কলকাতাজুড়ে দারুণ জনপ্রিয়।

৫. ভিক্টোরিয়া মেমোরিয়াল
আনন্দের এই শহর ছেড়ে গেলেও দীর্ঘ সময় যে বিষয়টি স্মৃতিতে থাকবে তা হলো ভিক্টোরিয়া মেমোরিয়াল। প্রশস্ত রাস্তা আর অবারিত সবুজে অদ্ভুত শান্তির পরশ।

৬. শিরাজ গোল্ডেন রেস্টুরেন্ট
এরা কলকাতাবাসীদের তিন যুগেরও বেশি সময় ধরে রসনাবিলাসী করে রেখেছে। এখানকার বিরিয়ানি তো বিখ্যাত। মোগলাই খাবারেরও তুলনা নেই।

৭. হুগলি নদীতে নৌভ্রমণ
কলকাতার অন্যতম দর্শনীয় স্থান। প্রতিদিন এর তীরে অসংখ্য মানুষ এসে ভিড় করে। ক্লান্তি-অবসাদ নিমিষেই দূর করে দেয় হুগলি। সেই সূর্যোদয় থেকে এই নদী প্রাণচঞ্চল হয়ে ওঠে। যদি যান তো এ নদীতে নৌকা ভ্রমণ না করে ফিরবেন না।

৮. ট্রামে ভ্রমণ
গোটা কলকাতার স্বাদ পেতে রয়েছে ট্রাম। গোটা শহরের মধ্য দিয়ে চক্কর দিন ট্রামে চড়ে। এটা ব্রিটিশদের অবদান। কলকাতায় ট্রাম সার্ভিস চালু হয় ১৮৭৩ সালে। এখনো সেই সেবা নিচ্ছে মানুষ।

৯. চায়নাটাউন
তান্দ্রার সরু গলিপথে রয়েছে ভারতের একমাত্র টিকে থাকা এবং কলকাতার নিজস্ব চায়নাটাউন। শহরের কর্মচাঞ্চল্যের স্ফূরণ ঘটে এখানে। অসংখ্য পর্যটকের ভিড় লেগে থাকে এখানে।

১০. ফ্লারিসে সকালের নাস্তা
পুরনো সময়ের ইংরেজদের চা খাওয়ার জন্য নির্মিত হয়েছিল। ১৯২৭ সালে তৈরি এই ক্যাফেটেরিয়া কলকাতার অন্যতম স্টাইলিশ এবং আইকনিক স্থান। এখানে বিক্রি হতো মিস্টার এবং মিসেস ফ্লারিসের উপাদেয় ক্রিমপূর্ণ পেস্ট্রি, পুডিং এবং অন্যান্য খাবার দিয়ে জীবনের সেরা সকালের নাস্তা সারুন।

সূত্র : হ্যাপি ট্রিপ

Googleplus Pint
Mizu Ahmed
Manager
Like - Dislike Votes 15 - Rating 4.7 of 10
Relatedআরও দেখুনঅন্যান্য ক্যাটাগরি

পাঠকের মন্তব্য (0)