JanaBD.ComLoginSign Up
JanaBD এনড্রয়েড এপ, ডাউনলোড করে সাথে থাকুন । Sms এবং বিভিন্ন টপিক Offline এ Favourite ও Save করে ব্যবহার করুন ।
Internet.Org দিয়ে ব্রাউজ করুন আমাদের সাইট ফ্রী , "জানাবিডি ডট কম"

রাশিয়াকে কোনও গোপন তথ্য দেননি ট্রাম্প : পুতিন

আন্তর্জাতিক 17th May 2017 at 11:50pm 104
রাশিয়াকে কোনও গোপন তথ্য দেননি ট্রাম্প : পুতিন

রুশ পররাষ্ট্রমন্ত্রী সের্গেই ল্যাভরভ-এর সঙ্গে সাক্ষাতে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প কোনও গোপন তথ্য দেননি বলে দাবি করেছেন রাশিয়ার প্রাসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন। বুধবার রাশিয়ার সোচিতে এক সংবাদ সম্মেলনে পুতিন বলেন, ট্রাম্প যে আদতে কোনও গোপন তথ্য দেয়নি রাশিয়ার পক্ষে তা প্রমাণ করা সম্ভব। প্রয়োজনে সের্গেই ল্যাভরভ এর সঙ্গে ডোনাল্ড ট্রাম্পের কথোপকথনের রেকর্ড প্রকাশেও প্রস্তুত রয়েছে মস্কো।

রুশ প্রেসিডেন্ট বিদ্রূপাত্মক ভঙ্গিতে বলেন, ‘ল্যাভরভের সঙ্গে আমি আজ কথা বলবো। ট্রাম্পের কাছে পাওয়া গোপন তথ্যের ব্যাপারে তিনি না আমাকে জানিয়েছেন; না গোয়েন্দা সংস্থার কোনও প্রতিনিধিকে জানিয়েছেন। তিনি খুব খারাপ কাজ করেছেন।’ এরপরই গম্ভীর কণ্ঠে পুতিন বলেন, ‘বাস্তবে কোনও গোপন নিরাপত্তা গোয়েন্দা তথ্য বিনিময় হয়নি। তারপরও যুক্তরাষ্ট্র যদি মনে করে এটা সম্ভব, তবে ল্যাভরভের সঙ্গে ট্রাম্পের আলোচনার রেকর্ড আমরা মার্কিন কংগ্রেস ও সিনেটকে সরবরাহ করতে প্রস্তুত।’

রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের পক্ষ থেকে ট্রাম্পের গোয়েন্দা তথ্য বিনিময়ের কথা অস্বীকার করা হলেও এর একদিন আগেই বিষয়টি স্বীকার করে নেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। এক টুইট বার্তায় তিনি দাবি করেন, ওই তথ্য বিনিময়ের অধিকার তার রয়েছে।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক সাবেক ও বর্তমান মার্কিন কর্মকর্তাদের বরাত দিয়ে প্রভাবশালী মার্কিন সংবাদমাধ্যম ওয়াশিংটন পোস্ট এক প্রতিবেদনে দাবি করা হয়েছে, রাশিয়ার কাছে সন্ত্রাসবাদ ইস্যুতে গুরুত্বপূর্ণ রাষ্ট্রীয় তথ্য ফাঁস করেছেন ট্রাম্প। তবে ট্রাম্প প্রশাসন ওয়াশিংটন পোস্টের দাবিকে বানোয়াট বলে উড়িয়ে দিয়েছে।

ওয়াশিংটন পোস্টের ওই দাবির প্রতিক্রিয়ায় ট্রাম্প এক টুইট বার্তায় বলেন, ‘প্রেসিডেন্ট হিসেবে আমি রাশিয়ার সঙ্গে তথ্য বিনিময় করতে চেয়েছি। আর তা করার পূর্ণ অধিকার রয়েছে আমার।’ তিনি জঙ্গিবাদ, বিমান পরিবহনের নিরাপত্তা বিষয়ক তথ্য বিনিময় করেছেন বলে জানান।

টুইট বার্তায় ট্রাম্প বলেন, ‘আমি চাই মানবিক সহায়তাসহ আইএস ও জঙ্গিবাদের বিরুদ্ধে লড়াইয়ে রাশিয়া আরও জোরালো পদক্ষেপ নেবে।’

যুক্তরাষ্ট্রের সাংবিধানিক অধিকার অনুযায়ী, প্রেসিডেন্ট হিসেবে গোপন তথ্য বিনিময় করার অধিকার ট্রাম্পের রয়েছে। তবে এ তথ্য প্রকাশের পর ডেমোক্র্যাটরা যেমন ট্রাম্পের সমালোচনা করছে, তেমনি রিপাবলিকানরা এ বিষয়ে ব্যাখ্যা দাবি করছে।

ন্যাটোর এক কূটনীতিক ব্রিটিশ বার্তা সংস্থা রয়টার্সকে বলেছেন, ‘যদি তা সত্য হয়, তাহলে ট্রাম্প মিত্রদের আস্থা হারাবেন।’

এদিকে, ওয়াশিংটন পোস্টের ওই দাবির প্রতিক্রিয়ায় রুশ পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র মারিয়া জাখারভা তার ফেসবুক পেজে দেওয়া এক পোস্টে লিখেছেন, ‘আপনারা কি এখনও মার্কিন সংবাদপত্র পড়ছেন? আপনাদের তা পড়া উচিত নয়। আপনারা ওই সংবাদপত্র অন্য কোনও কাজে ব্যবহার করতে পারেন, তবে তা পড়া উচিত নয়। শেষ পর্যন্ত তা শুধু ক্ষতিকরই নয়, বরং বিপজ্জনক।’

৯ মে (মঙ্গলবার) হিলারি ক্লিনটনের ইমেইল ফাঁসের তদন্ত প্রভাবিত করার অভিযোগ তুলে এফবিআই পরিচালক জেমস কোমিকে বরখাস্ত করেন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প। এর একদিন পরই রুশ পররাষ্ট্রমন্ত্রী সের্গেই লাভরভ ও রাষ্ট্রদূত সের্গেই কিসলিয়াককে হোয়াইট হাউসে আমন্ত্রণ জানান তিনি। মার্কিন কর্মকর্তাদের বরাত দিয়ে ওয়াশিংটন পোস্টের দাবি, ওভাল অফিসে করা ওই বৈঠকেই ট্রাম্প গুরুত্বপূর্ণ রাষ্ট্রীয় তথ্য পাচার করেন।

তথ্যসূত্রঃ সিএনএন, বিবিসি

JanaBD এনড্রয়েড এপ, ডাউনলোড করে সাথে থাকুন । Sms এবং বিভিন্ন টপিক Offline এ Favourite ও Save করে ব্যবহার করুন ।

Googleplus Pint
Like - Dislike Votes 6 - Rating 5 of 10
Relatedআরও দেখুনঅন্যান্য ক্যাটাগরি

পাঠকের মন্তব্য (0)