JanaBD.ComLoginSign Up
জানা হবে অনেক কিছু, চালু হয়েছে জানাবিডি (JanaBD) এন্ডয়েড এপস । বিস্তারিত জানুন..
Internet.Org দিয়ে ব্রাউজ করুন আমাদের সাইট ফ্রী , "জানাবিডি ডট কম"

বাংলাদেশের বিপক্ষে আরও আগ্রাসী হওয়ার হুমকি কোহলির

ক্রিকেট দুনিয়া 13th Jun 2017 at 10:42am 463
বাংলাদেশের বিপক্ষে আরও আগ্রাসী হওয়ার হুমকি কোহলির

বাঁচা-মরার ম্যাচে চাপের মুখে ভেঙে পড়াটাই যেন দক্ষিণ আফ্রিকার নিয়তি। আইসিসির যেকোনো টুর্নামেন্টেই নকআউট ম্যাচের চাপ কেন যেন নিতে পারে না প্রেটিয়ারা। জিততেই হবে এমন ম্যাচে বারবার তাদের ‘চোকার’ চেহারাটা বেরিয়ে আসে। এবারও সেই একই চিত্রনাট্য মেনে চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির গ্রুপপর্ব থেকেই বিদায় নিতে হল ওয়ানডে র‌্যাকিংয়ের একনম্বর দলটিকে।

রোববার ওভালে অলিখিত কোয়ার্টার ফাইনালে দক্ষিণ আফ্রিকাকে আট উইকেটে হারিয়ে ভারত চলে গেছে সেমিফাইনালে। দেশে ফেরার বিমান ধরার আগে প্রবল সমালোচনার মুখেও নেতৃত্বের ব্যাটন ছাড়তে অস্বীকৃতি জানালেন প্রোটিয়া অধিনায়ক এবি ডি ভিলিয়ার্স। উল্টো নিজের পক্ষে সাফাই গাইলেন। নিজেকে ভালো অধিনায়ক হিসেবে চিত্রিত করে ডি ভিলিয়ার্স বললেন, তিনিই একদিন বিশ্বকাপ এনে দিতে পারেন দেশকে।

ভারত বিদায় নিলে ডি ভিলিয়ার্সের মতো বিরাট কোহলির অধিনায়কত্ব নিয়েও হয়তো প্রশ্ন উঠে যেত। কিন্তু কোহলি অন্য ধাতুতে গড়া। চাপের মুখেই বরং তার সেরাটা বেরিয়ে আসে। আগের ম্যাচে শ্রীলংকার কাছে অপ্রত্যাশিত হারে দেয়ালে পিঠ ঠেকে যাওয়ার পর সতীর্থদের আগলে রাখার বদলে উল্টো দু’কথা শুনিয়ে পুরো দলকে তাতিয়ে দিয়েছিলেন ভারত অধিনায়ক। নিজেকেও ছাড় দেননি।

কোহলির এ নিষ্ঠুর সততাই স্বরূপে ফিরিয়েছে প্রতিযোগিতার বর্তমান চ্যাম্পিয়নদের। বাঁচা-মরার ম্যাচে দলের জ্বলে ওঠার রহস্যটা কোহলি নিজেই জানালেন, ‘আপনাকে নিজের কাছে সৎ হতে হবে। অনেক সময় এমন কিছু বলতে হবে, যা আঘাত করবে। এটাই আমি বিশ্বাস করি। আমিসহ সবাইকে নিজের ভুলের দায় নিতে হয় এবং দ্রুত সমাধান খুঁজতে হয়। একই ভুল আপনি বারবার করতে পারেন না। শ্রীলংকা ম্যাচের পর টিম মিটিংয়ে এ নিয়ে কথা বলেছিলাম আমরা। চেয়েছিলাম আত্মনিবেদন ও তীব্রতা বাড়াতে। আমি খুশি যে, পুরো দল সেই আগ্রাসন বাড়ানোর মন্ত্রে সাড়া দিয়েছে।’

শেষ ম্যাচে ৭২ বল ও আট উইকেট হাতে রেখে দাপুটে জয় তুলে নেয়ায় পাকিস্তান-শ্রীলংকা ম্যাচের আগেই ভারতের গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হওয়া প্রায় নিশ্চিত হয়ে যায়। ১৫ জুন বার্মিংহামের এজবাস্টনে দ্বিতীয় সেমিফাইনালে বাংলাদেশকে সম্ভাব্য প্রতিপক্ষ ধরে নিয়ে একটি বার্তাও যেন দিয়ে রাখলেন কোহলি।

২০১৫ বিশ্বকাপ থেকেই বাংলাদেশ-ভারত ম্যাচ মানেই অন্যরকম উত্তেজনা। এ দ্বৈরথে কিছুতেই হার মানতে চান না বাংলাদেশের খেলোয়াড়রা। প্রথমবারের মতো চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির সেমিফাইনালে উঠে মাশরাফিদের আত্মবিশ্বাসও গেছে বেড়ে।

সেটা মাথায় রেখেই হয়তো শেষ চারে আরও আগ্রাসী ক্রিকেট খেলার বার্তা দিলেন কোহলি। বার্মিংহাম জায়গাটা আমাদের খুব পছন্দের। এখানে আমরা আগেও খেলেছি। এজবাস্টনের পিচ আমাদের খেলার ধরনের সঙ্গে দারুণ মানানসই। জিতলেও সব সময় উন্নতির জায়গা থাকে। সামনে এগিয়ে যেতে আরও উন্নতির রাস্তাই আমরা খুঁজি। পরের ম্যাচে আরও আগ্রাসী ক্রিকেট খেলতে চাই।’

তথ্যসূত্রঃ যুগান্তর

জানা হবে অনেক কিছু, চালু হয়েছে জানাবিডি (JanaBD) এন্ডয়েড এপস । বিস্তারিত জানুন..

Googleplus Pint
Like - Dislike Votes 4 - Rating 5 of 10
Relatedআরও দেখুনঅন্যান্য ক্যাটাগরি

পাঠকের মন্তব্য (1)