JanaBD.ComLoginSign Up

এই চার ফরয পূরণ হলেই মুসলমানদের বিয়ে বিশুদ্ধ হয়

ইসলামিক শিক্ষা Jun 18 at 10:50pm 1,135
এই চার ফরয পূরণ হলেই মুসলমানদের বিয়ে বিশুদ্ধ হয়

বিয়ে হল একটি সামাজিক বন্ধন বা বৈধ চুক্তি যার মাধ্যমে দু’জন মানুষের মধ্যে দাম্পত্য সম্পর্ক স্থাপিত হয়। বিয়ে ও পরিবার এমন এক সামাজিক ব্যাপার, যার জন্য শুধু মানসিক প্রস্তুতি থাকলেই হয় না, প্রাকৃতিকভাবে শরীরকেও প্রস্তুত হতে হয়।

একজন আরেকজনের সঙ্গে অর্থপূর্ণ কথা বলা, সমস্যাগুলো বলা আর একসঙ্গে সেটার সমাধান খুঁজে বের করা—এসবের মাধ্যমে আমরা চারটি খুব গুরুত্বপূর্ণ বিষয় শিখি: সম্মান, বিশ্বাস, বন্ধুত্ব আর ভালোবাসা। মুসলমানদের ওপর আল্লাহ তায়ালা বিয়ে ফরয করে দিয়েছেন। কিন্তু বিয়ে ফরয হলেও ৪টি শর্ত পূরণ না করলে সেই বিয়েকে আল্লাহ তা’য়ালা কখনোই বিশুদ্ধ বিয়ে বলে মেনে নেবে না। তাই সেই ৪টি শর্ত সম্পর্কে এখনই চলুন জেনে নিই।

(১) ইশারা করে দেখিয়ে দেয়া কিংবা নাম উল্লেখ করে সনাক্ত করা অথবা গুণাবলী উল্লেখ অথবা অন্য কোন মাধ্যমে বর-কনে উভয়কে সুনির্দিষ্ট করে নেয়া।

(২) বর-কনে প্রত্যেকে একে অপরের প্রতি সন্তুষ্ট হওয়া। এর দলীল হচ্ছে নবী (সাঃ) বাণী। নবীজী (সা.) বলেছেন, ‘স্বামীহারা নারী (বিধবা অথবা তালাকপ্রাপ্ত) কে তার সিদ্ধান্ত জানা ছাড়া (অর্থাৎ সিদ্ধান্ত তার কাছ থেকে চাওয়া হবে এবং তাকে পরিষ্কারভাবে বলতে হবে) বিয়ে দেয়া যাবে না এবং কুমারী মেয়েকে তার সম্মতি ছাড়া (কথার মাধ্যমে অথবা চুপ থাকার মাধ্যমে) বিয়ে দেয়া যাবে না। লোকেরা জিজ্ঞেস করল, ইয়া রাসুলুল্লাহ (সাঃ)! কেমন করে তার সম্মতি জানবো (যেহেতু সে লজ্জা করবে)। তিনি বললেন, চুপ করে থাকাটাই তার সম্মতি।” [সহীহ বুখারী, (৪৭৪১)।

(৩) বিয়ের আকদ (চুক্তি) করানোর দায়িত্ব মেয়ের অভিভাবককে পালন করতে হবে। যেহেতু আল্লাহ তা’য়ালা বিয়ে দেয়ার জন্য অভিভাবকদের প্রতি নির্দেশনা জারী করেছেন।

আল্লাহ তাআলা বলেন, “আর তোমরা তোমাদের মধ্যে অবিবাহিত নারী-পুরুষদের বিবাহ দাও।” [সূরা নূর, ২৪:৩২]

নবী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম বলেছেন: “যে নারী তার অভিভাবকের অনুমতি ছাড়া বিয়ে করবে তার বিবাহ বাতিল, তার বিবাহ বাতিল, তার বিবাহ বাতিল।” [হাদিসটি তিরমিযি (১০২১) ও অন্যান্য গ্রন্থকার কর্তৃক সংকলিত এবং হাদিসটি সহীহ]

(৪) বিয়ের আকদের সময় সাক্ষী রাখতে হবে। দলীল হচ্ছে- নবী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম বলেছেন,“অভিভাবক ও দুইজন সাক্ষী ছাড়া কোন বিবাহ নেই।” [তাবারানী কর্তৃক সংকলিত, সহীহ জামে (৭৫৫৮)।

বিয়ের প্রচারণা নিশ্চিত করতে হবে। এ সম্পর্কে নবী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম বলেছেন,“তোমরা বিয়ের বিষয়টি ঘোষণা কর।” [মুসনাদে আহমাদ এবং সহীহ জামে গ্রন্থে হাদিসটিকে ‘হাসান’ বলা হয়েছে (১০৭২)।

Googleplus Pint
Noyon Khan
Manager
Like - Dislike Votes 18 - Rating 4.4 of 10
Relatedআরও দেখুনঅন্যান্য ক্যাটাগরি
জিনরা কি মিষ্টি খায়? জিনরা কি মিষ্টি খায়?
Yesterday at 2:50pm 406
স্বপ্নে রোজা রাখা ও ঈদ পালন করতে দেখলে কী হয়? স্বপ্নে রোজা রাখা ও ঈদ পালন করতে দেখলে কী হয়?
Thu at 9:28pm 929
প্রতিবন্ধী শিশুরা কি জান্নাতে যাবে? প্রতিবন্ধী শিশুরা কি জান্নাতে যাবে?
Wed at 2:35pm 742
রাসুল (সা.)-এর পছন্দনীয় খাবার খাওয়া কি সুন্নত? রাসুল (সা.)-এর পছন্দনীয় খাবার খাওয়া কি সুন্নত?
Tue at 10:36am 627
কাঁকড়া খাওয়া কি জায়েজ? কাঁকড়া খাওয়া কি জায়েজ?
Oct 16 at 8:29pm 994
আকিকা দেওয়া কি জরুরি? আকিকা দেওয়া কি জরুরি?
Oct 16 at 11:18am 488
সৌদি আরবে মারা গেলে কি কবরের আজাব হয়? সৌদি আরবে মারা গেলে কি কবরের আজাব হয়?
Oct 15 at 1:30pm 920
অমুসলিমদের দান করা জমিতে কি মসজিদ নির্মাণ করা যাবে? অমুসলিমদের দান করা জমিতে কি মসজিদ নির্মাণ করা যাবে?
Oct 14 at 12:48pm 772

পাঠকের মন্তব্য (0)

Recent Posts আরও দেখুন

প্রসেনজিৎকে কখনোই ভাইফোঁটা দিতে চান না শুভশ্রী
হবু জীবনসঙ্গীর চরিত্র জানুন তাঁর ঠোঁট দেখে!
আজকের আবহাওয়া : ২৪ অক্টোবর, ২০১৭
বাণী-বচন : ২৪ অক্টোবর ২০১৭
কাজলের একটি ‘লাইক’-এ অভিমান ভাঙল তিন বন্ধুর!
হোয়াইটওয়াশ হয়েও রেকর্ড গড়ল শ্রীলঙ্কা
ফিফা বর্ষসেরা একাদশ ঘোষণা- স্থান পেলেন যারা
আবারও ফিফার বর্ষসেরা খেলোয়াড় রোনালদো