JanaBD.ComLoginSign Up

জানা হবে অনেক কিছু, চালু হয়েছে জানাবিডি (JanaBD) এন্ডয়েড এপস । বিস্তারিত জানুন..
Internet.Org দিয়ে ব্রাউজ করুন আমাদের সাইট ফ্রী , "জানাবিডি ডট কম"

টাইপ-২ ডায়াবেটিস রোগীদের জন্য উপকারী ৩ জুস

সাস্থ্যকথা/হেলথ-টিপস Fri at 11:49pm 82
টাইপ-২ ডায়াবেটিস রোগীদের জন্য উপকারী ৩ জুস

শরীরে ইনসুলিন হরমোনের অভাবে কিংবা এর দুর্বল কার্যকারিতার কারণে রক্তে শর্করার মাত্রা স্বাভাবিকের থেকে অনেক বেড়ে গেলে সেটাই ডায়াবেটিস। এটি মূলত দু ধরনের হয়, টাইপ-১ ডায়াবেটিস এবং টাইপ-২ ডায়াবেটিস। ডায়াবেটিস রোগীদের প্রায় ৯০ শতাংশ ব্যক্তিই টাইপ-২ তে ভুগে থাকেন। এতে আক্রান্ত রোগীরা তাদের শরীরে পর্যপ্ত ইনসুলিন তৈরি হতে পারে না। এর ফলে রক্তে ব্লাড সুগারের মাত্রা অনেক বেড়ে যায়। এমনটা হলে বারবার প্রস্রাব চাপা, ক্ষিদে বেড়ে যাওয়া, ক্লান্তি, ওজন হ্রাস অথবা বৃদ্ধি, ক্ষত শুকতে দেরি হওয়া এবং মাথা যন্ত্রণা হওয়ার মতো লক্ষণগুলি দেখা যায়। শুধু প্রাপ্তবয়স্ক ব্যক্তিরাই নন, বরং ছোট বাচ্চারাও টাইপ-২ তে আক্রান্ত হতে পারেন।

তবে একটু সচেতন হলেই টাইপ-২ ডায়াবেটিসে আক্রান্ত হওয়া এড়ানো যায় বলে দাবি করেছেন বিশেষজ্ঞরা। তারা বলেছেন, টাইপ-২ ডায়াবেটিস প্রতিরোধ করতে হলে জীবনযাত্রার ধরণে কিছু পরিবর্তন আনতে হবে। সেইসঙ্গে খাদ্যাভাসে থাকতে হবে সচেতন। এক্ষেত্রে টাইপ-২ ডায়াবেটিস রোগীদের জন্য উপকারী তিন ধরণের জুসের কথা বলেছেন বিশেষজ্ঞরা।

ডালিমের জুস
টাইপ-২ ডায়াবেটিস রোগীদের জন্য ডালিমের জুস খুবই উপকারী। এতে অ্যান্টিঅক্সিডেন্টসহ এমন অনেক পুষ্টি উপাদান রয়েছে, যেগুলো পরিবেশগত নানা ক্ষতির হাত থেকে কোষগুলোকে রক্ষা করে। একইসঙ্গে হৃদরোগজনিত সমস্যা, ক্যান্সার প্রভৃতিসহ নানা রোগ থেকেও রক্ষা করে।

১০ জন ডায়াবেটিস রোগীর ওপর করা এক গবেষণায় দেখা গেছে, তিন মাসে প্রতিনিয়ত এই জুসে পানে ডায়াবেটিস রোগীদের মধ্যে অভাবনীয় পরিবর্তন লক্ষ্য করা গেছে। এই জুসের নিম্ন গ্লাইসেমিক ইনডেস্ক এসব রোগীদের রক্তের শর্করায় মাঝারি ধরণের প্রভাব ফেলেছে। তবে চিনি থাকা সত্ত্বেও এই জুস পানে অংশগ্রহণকারীদের রক্তে শর্করার পরিমাণ একেবারেই বাড়েনি। তবে এটা নিয়ে অদূর ভবিষ্যতে আরও গবেষণার প্রয়োজন রয়েছে বলে জানিয়েছেন বিশেষজ্ঞরা।

কমলার জুস
ডায়াবেটিস রোগীদের জন্য অত্যন্ত উপকারী আরেকটি পানীয় হলো কমলার জুস। কমলাতে ভিটামিন সি, ভিটামিন এ, ভিটামিন বি-১, ফলিক অ্যাসিড ও পটাসিয়াম প্রচুর পরিমাণে থাকে যা শরীরে সুগারের মাত্রা নিয়ন্ত্রণ করে। একইসঙ্গে এটি রক্তের স্বাভাবিক কার্যক্রমেরও উন্নতি সাধন করে। এই জুসে অ্যান্টিঅক্সিডেন্টের লেভেল টিস্যুর নানা ক্ষতি থেকে রক্ষা করে। এখানেই শেষ নয়, ভিটামিন সি সমৃদ্ধ এই খাবারটি শরীরের আরও নানা উপকার করে।

টমেটোর জুস
টাইপ-২ ডায়াবেটিস রোগীদের জন্য টমেটো খুবই ভালো একটি সবজি। কার্ডিওভাসকুলার স্বাস্থ্যের উন্নতি ঘটাতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখে এর জুস। অস্ট্রেলিয়ার ইউনিভার্সিটি অব নিউকাস্টলের গবেষকদের করা এক গবেষণায় দেখা গেছে, টাইট-২ ডায়াবেটিস রোগীদের মধ্যে যারা একটানা তিন সপ্তাহ ধরে টমেটোর জুস পান করেছেন তাদের রক্তের স্বাভাবিক কার্যক্রমের উন্নতি ঘটেছে। একইসঙ্গে তাদের হৃদরোগে আক্রান্ত হওয়ার ঝুঁকি অনেক কমে গেছে।

গবেষকরা বলেছেন, টমেটোতে নিম্নমাত্রার গ্লাইসেমিক ইনডেস্ক বিদ্যমান থাকায় তা শর্করার পরিমাণ নিয়ন্ত্রণে রাখতে সাহায্য করে। এর ফলে ডায়াবেটিসও থাকে আপনার নিয়ন্ত্রণে।

গবেষণা প্রতিবেদনটি ২০০৪ সালে আগস্টে 'জার্নাল অব দ্য আমেরিকান মেডিক্যাল অ্যাসোসিয়েশন' এ প্রকাশিত হয়েছে।


জানা হবে অনেক কিছু, চালু হয়েছে জানাবিডি (JanaBD) এন্ডয়েড এপস । বিস্তারিত জানুন..

Googleplus Pint
Like - Dislike Votes 0 - Rating 0 of 10
Relatedআরও দেখুনঅন্যান্য ক্যাটাগরি

পাঠকের মন্তব্য (0)