JanaBD.ComLoginSign Up

শীতকালে কেন শীত লাগে?

জানা অজানা 09 Jan 2018 at 11:02pm 1,178
শীতকালে কেন শীত লাগে?

আচ্ছা, শীতকালেই কেন শীত লাগবে আর গ্রীষ্মকালে গরম? মনে হতে পারে এটা আবার কেমন প্রশ্ন, এর উত্তর তো সোজা!

কেউ হয়তো এর মধ্যেই উত্তর তৈরি করে ফেলেছে- ‘গ্রীষ্মকালে পৃথিবী সূর্যের কাছে থাকে, তাই গরম; আর শীতে থাকে দূরে, তাই তখন ঠাণ্ডা।’ আবার কেউ মজা করে বলবে- ‘বছর ঘুরে শীতকাল যখন আসে তখন সূর্যমামা ক্লান্ত হয়ে যায়। তাই শীতকালে তার তেজ কিছুটা কম থাকে। কিন্তু গ্রীষ্মকালে সে বেশ রেগে থাকে!’

কিন্তু সত্যি কথা হলো, এই সাধারণ প্রশ্নটিরও রয়েছে চমৎকার একটি বৈজ্ঞানিক ব্যাখ্যা। চলো তাহলে সেটি জেনে নেওয়া যাক-

আমরা জানি, পৃথিবী সূর্যের চারদিকে নির্দিষ্ট কক্ষপথে ঘোরে। এ ঘোরার সময় পৃথিবী সূর্যের দিকে সামান্য হেলে থাকে। পৃথিবী আবার তার নিজ অক্ষেও ঘোরে, তাই বিভিন্ন সময় পৃথিবীর বিভিন্ন অংশ সূর্যের দিকে হেলে থাকে।

এভাবে ঘুরতে ঘুরতে পৃথিবীর দক্ষিণ গোলার্ধ কখনও সূর্যের কাছে চলে যায়, আবার কখনও উত্তর গোলার্ধ। যখন যে অংশ সূর্যের দিকে হেলে থাকে তখন সে অংশ খাড়াভাবে বেশিক্ষণ ধরে সূর্যের আলো ও তাপ পায়। আর তখন সেই অংশে বেশি গরম পড়ে। এসময় থাকে গ্রীষ্মকাল।

একটা অংশ সূর্যের কাছে থাকা মানে তার উল্টো দিকের অংশটা থাকবে সূর্য থেকে দূরে। আর দূরে থাকলে সেই অংশটা কম আলো ও তাপ পাবে। তখন সেই অংশে থাকে শীতকাল।

একটা উদাহরণ দেওয়া যাক- বাংলাদেশে যখন গ্রীষ্মকাল, অস্ট্রেলিয়ায় তখন শীতকাল। আবার ওদের যখন গ্রীষ্ম, তখন আমাদের থাকে শীত। কারণ অস্ট্রেলিয়া দক্ষিণ গোলার্ধের দেশ ও বাংলাদেশ উত্তর গোলার্ধের দেশ।

আরেকটি ব্যাপার হলো, গ্রীষ্মকালে সূর্যের আলো পৃথিবীর ওই অংশে খাড়াভাবে পড়ার কারণে সেই আলো চারদিকে খুব বেশি একটা ছড়িয়ে যায় না। ফলে ভূপৃষ্ঠের কোনো নির্দিষ্ট বিন্দুতে পড়া তাপের পরিমাণ বাড়ে। ফলে ভূপৃষ্ঠ আরও দীর্ঘ সময় ধরে উত্তপ্ত হয়। আর গ্রীষ্মকালে দিন হয় বড় আর রাত ছোট। তাই গ্রীষ্মকালে গরমের পরিমাণ বাড়ে।

ঠিক বিপরীত ঘটনা ঘটে শীতকালে। তখন পৃথিবীর ওই অংশে সূর্যের আলো বাঁকা বা তীর্যকভাবে পড়ে, আর এই আলো চারদিকে ছড়িয়েও পড়ে বেশি। ফলে কোনো নির্দিষ্ট বিন্দুতে পড়া তাপশক্তির পরিমাণ গ্রীষ্মের তুলনায় বেশ কমে যায়। আর শীতকালে দিন হয় ছোট ও রাত বড়। তাই শীতকালে আমাদের ঠাণ্ডা লাগে।

আরেকটি ব্যাপার হলো, মানুষ হলো উষ্ণ রক্তের প্রাণী। কারণ তার শরীরে সবসময় তাপ উৎপন্ন হয়। আমাদের দেহের তাপমাত্রা সবসময়ই একটু বেশি থাকে। কিন্তু শীতকালে আমাদের দেহ অনেকটাই তাপ হারায়, এ হারানোটা অনুভব করি বলেই আমাদের শীত লাগে।

Googleplus Pint
Jafar IqBal
Administrator
Like - Dislike Votes 21 - Rating 5.7 of 10
Relatedআরও দেখুনঅন্যান্য ক্যাটাগরি
জেনে নিন তাজমহল সম্পর্কে কিছু অবাক করা তথ্য! জেনে নিন তাজমহল সম্পর্কে কিছু অবাক করা তথ্য!
24th Dec 17 at 10:19pm 1,553
জেনে নিন বার্গার খাওয়ার সঠিক পদ্ধতি জেনে নিন বার্গার খাওয়ার সঠিক পদ্ধতি
23rd Dec 17 at 7:57pm 666
বিমানবালাকে যে ১০ প্রশ্ন কখনোই করতে নেই বিমানবালাকে যে ১০ প্রশ্ন কখনোই করতে নেই
19th Dec 17 at 1:05pm 1,613
আপনি জানেন কি, ১৯৭৪ সালের ১ টাকা বর্তমান সময়ের কত টাকা ?? আপনি জানেন কি, ১৯৭৪ সালের ১ টাকা বর্তমান সময়ের কত টাকা ??
15th Dec 17 at 3:33pm 1,950
সংযুক্ত আরব আমিরাত সম্পর্কে এই অজানা তথ্যগুলি না জানলেই নয় সংযুক্ত আরব আমিরাত সম্পর্কে এই অজানা তথ্যগুলি না জানলেই নয়
13th Dec 17 at 4:19pm 1,093
নদীতে নামলেই কঙ্কাল! নদীতে নামলেই কঙ্কাল!
7th Dec 17 at 10:23pm 978
বোতলের তলায় ত্রিকোণ চিহ্ন, এর অর্থ কি জানেন? বোতলের তলায় ত্রিকোণ চিহ্ন, এর অর্থ কি জানেন?
29th Nov 17 at 2:05pm 1,470
বরফাবৃত পানির নিচে কচ্ছপেরা ঘুমিয়ে শীত কাটায় কীভাবে? বরফাবৃত পানির নিচে কচ্ছপেরা ঘুমিয়ে শীত কাটায় কীভাবে?
28th Nov 17 at 9:42am 690

পাঠকের মন্তব্য (0)

Recent Posts আরও দেখুন
আজকের রাশিফল : ২১ জানুয়ারি, ২০১৮আজকের রাশিফল : ২১ জানুয়ারি, ২০১৮
আজকের এই দিনে : ২১ জানুয়ারি, ২০১৮আজকের এই দিনে : ২১ জানুয়ারি, ২০১৮
ফ্রেঞ্চ ফ্রাই তৈরির সবচেয়ে সহজ রেসিপিফ্রেঞ্চ ফ্রাই তৈরির সবচেয়ে সহজ রেসিপি
বাংলালিংক গ্রাহকরা এখন পাচ্ছেন মাত্র ৫টাকায় 1GB!বাংলালিংক গ্রাহকরা এখন পাচ্ছেন মাত্র ৫টাকায় 1GB!
সকাল সকাল চুনকামসকাল সকাল চুনকাম
মাতাল আর সাপের মধ্যে মিলমাতাল আর সাপের মধ্যে মিল
মিটে গেছে শুভশ্রী-মিমির দ্বন্দ্ব!মিটে গেছে শুভশ্রী-মিমির দ্বন্দ্ব!
তেলেই দূর হবে চুলের সব সমস্যাতেলেই দূর হবে চুলের সব সমস্যা