JanaBD.ComLoginSign Up

ঘুমাতে যাওয়ার আগে পায়ে ম্যাসাজ কেন জরুরি?

সাস্থ্যকথা/হেলথ-টিপস 22nd Apr 2016 at 10:10am 185
ঘুমাতে যাওয়ার আগে পায়ে ম্যাসাজ কেন জরুরি?

সারাদিনের কর্মব্যস্ততার পরে রাতে ঘরে ফিরে পায়ে ম্যাসাজ সবারই ভালো লাগবে। শুধু শিথিল করা ছাড়াও পায়ে ম্যাসেজের রয়েছে অনেক উপকারী দিক। ২০০২ সালে নারিসিং অ্যান্ড হেলথ সায়েন্সে প্রকাশিত একটি গবেষণায় বলা হয়, পায়ে ম্যাসাজ রক্ত চলাচল বাড়ায়, শরীর শিথিল করে এবং রোগপ্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায়। পায়ে ম্যাসাজ আপনি ঘরে বসে নিজেই করতে পারেন।

স্বাস্থ্যবিষয়ক ওয়েবসাইট টপ টেন হোম রেমেডি জানিয়েছে রাতে ঘুমানোর আগে পায়ে ম্যাসাজ করার কিছু উপাকারিতার কথা।

১. রক্তচলাচল বাড়ায়

আঁটসাঁট জুতো পরার জন্য অনেক সময় পা ব্যথা করে, রক্ত চলাচল কমে যায়। রক্ত চলাচল বাড়াতে ম্যাসাজ খুব ভালো উপায়। ঘুমাতে যাওয়ার আগে ১০ থেকে ২০ মিনিটের একটি ম্যাসাজ রক্তচলাচল বাড়াবে এবং আরাম দেবে।

২. ঘুম ভালো হয়

ভালো ঘুমের জন্য পায়ে ম্যাসাজ খুব উপকারী- বিশেষজ্ঞরা এমনটাই বলেন। তবে সারা গায়ে ম্যাসাজ করতে পারলে আরো ভালো হয়। ম্যাসাজ হাত ও পায়ের পেশিকে শিথিল করে। আর শরীর যখন শিথিল থাকবে ঘুমতো ভালো হবেই।

৩. উদ্বেগ দূর করে

মানসিক চাপ ও উদ্বেগ বর্তমান সময়ের একটি বড় সমস্যা।পায়ের ম্যাসাজ মানসিক চাপ ও উদ্বেগ দূর করতে কাজে দেয়। পায়ে ম্যাসাজ করলে মস্তিস্কের স্নায়ুতে এর ভালো প্রভাব পড়ে। এতে শিথিল বোধ হয়, উদ্বেগ কমে।

৪. দীর্ঘমেয়াদি পায়ে ব্যাথা কমায়

পায়ে ম্যাসাজ করলে দীর্ঘমেয়াদি পায়ে ব্যথা কমে। এটি পেশির ফোলাভাব ও ব্যাথা কমায়। আর রাতে ঘুমাতে যাওয়ার আগে পায়ে ম্যাসাজ করলে ব্যথামুক্ত ঘুম হয়।

৫. উচ্চ রক্তচাপ কমায়

ঘুমানোর আগে পায়ে ম্যাসাজ করলে উচ্চ রক্তচাপ কমে। ২০১৬ সালে প্রকাশিত এক গবেষণায় বলা হয়, পায়ে ম্যাসাজ উচ্চ রক্তচাপ কমাতে কাজ করে।

কীভাবে ম্যাসাজ করবেন

১. একটি বড় পাত্র বা বোলে হালকা গরম পানি নিন। এর মধ্যে দুই থেকে তিন ফোঁটা অ্যাসেনশিয়াল ওয়েল নিন।

২. পানিতে ১০ থেকে ২০ মিনিট পা ভেজান। একটি নরম তোয়ালে দিয়ে পা মুছুন।

৩. এবার একটি আরামদায়ক চেয়ারে বসুন।

৪. এরপর হালকা গরম তেল দিয়ে পায়ে ম্যাসাজ করুন। তেলের ক্ষেত্রে নারকেল তেল, জলপাইয়ের তেল, সরিষার তেল বেছে নিতে পারেন। এভাবে দুই পায়েই করুন।"

Googleplus Pint
Mizu Ahmed
Manager
Like - Dislike Votes 9 - Rating 5.6 of 10
Relatedআরও দেখুনঅন্যান্য ক্যাটাগরি

পাঠকের মন্তব্য (0)