JanaBD.ComLoginSign Up

গরমেও ময়েশ্চারাইজার!

রূপচর্চা/বিউটি-টিপস 22nd Apr 2016 at 2:58pm 336
গরমেও ময়েশ্চারাইজার!

গরম দেখে ময়েশ্চারাইজার লাগানোর চিন্তাও কি বাদ? গরমের দিনে ক্রিম লাগানোর কথা চিন্তাতেও হয়তো আসে না। কিন্তু গরমেও ত্বক আর্দ্রতা হারায়। এ সময় সার্বিকভাবে শরীরে পানির পরিমাণ কমে গেলে ত্বক শুষ্ক হয়ে পড়ে। আর তাই ত্বকের আর্দ্রতা ধরে রাখতে গরমেও ভোলা যাবে না ময়েশ্চারাইজারের কথা।

হারমনি স্পার আয়ুর্বেদিক রূপবিশেষজ্ঞ রাহিমা সুলতানা জানালেন, এই সময়ে ময়েশ্চারাইজার লাগানো প্রয়োজন। শীতের সময়টার মতো ভারী কোনো ময়েশ্চারাইজার নয়, বরং হালকা ময়েশ্চারাইজার ব্যবহারের পরামর্শ দিলেন তিনি।


গরমে ময়েশ্চারাইজার ব্যবহার
প্রতিবার মুখ ধোয়ার পরই ময়েশ্চারাইজার লাগানো উচিত। ময়েশ্চারাইজার ব্যবহার করলে ত্বকে বাড়তি কোনো আর্দ্রতা তৈরি হয় না, বরং ক্ষারজাতীয় পদার্থের বিরূপ প্রভাব থেকে বাঁচার জন্য ময়েশ্চারাইজার লাগানো ভালো। ফেসওয়াশ ব্যবহারের পর ময়েশ্চারাইজার লাগানো না হলে ত্বক শুষ্ক হয়ে যেতে পারে।

সমপরিমাণ গোলাপজল ও গ্লিসারিন মিশিয়ে নিন। এটিকে ময়েশ্চারাইজার হিসেবে ব্যবহার করতে পারেন। ত্বক শুষ্ক-প্রকৃতির হলে এতে সামান্য জলপাই তেল যোগ করতে পারেন। চাইলে মধুও লাগাতে পারেন। মধু ময়েশ্চারাইজারের কাজ করবে। লাগানোর কিছুক্ষণ পর ধুয়ে ফেলতে হবে।

ত্বক অতিরিক্ত শুষ্ক হলে ক্লেনজারের পরিবর্তে দুধের সর আর মধু দিয়ে ত্বক পরিষ্কার করতে পারেন। দুধের সর ও মধু ত্বকের আর্দ্রতা ধরে রাখতে সাহায্য করে।

সোনালী’স এইচডি মেকআপ স্টুডিওর স্বত্বাধিকারী সোনালী ফেরদৌসী মজুমদার বলেন, ‘রোদে যাওয়ার মিনিট বিশেক আগে ময়েশ্চারাইজিং সানস্ক্রিন লাগিয়ে নিন।

এতে ত্বকে রোদের বিরূপ প্রভাব কম পড়বে, আবার ত্বক আর্দ্র থাকবে।’ এই সময়টার জন্য ওয়াটারবেসড ময়েশ্চারাইজার ভালো। মুখে ময়েশ্চারাইজার লাগানোর পর গলার ত্বকেও লাগিয়ে নিন। হাত ও পায়ের জন্যও আলাদা ময়েশ্চারাইজিং সানস্ক্রিন লাগিয়ে নিন। আর্দ্রতা ধরে রাখতে সাহায্য করবে এটি। রোদ থেকে ফিরে ত্বক পরিষ্কার করে হালকা লোশন লাগিয়ে নিতে পারেন।

গোসলের পর এবং ঘুমানোর আগে হালকা কোনো লোশন লাগিয়ে নেওয়া ভালো। অ্যালোভেরা ও জোজোবার মতো হালকা উপাদান ব্যবহারে আরাম পাবেন।

জেলজাতীয় ময়েশ্চারাইজারও এই আবহাওয়ায় মন্দ নয়। সহজেই ত্বকে মিশে যায় এবং ত্বকে চিটচিটে ভাবও থাকে না। রাহিমা সুলতানা ও সোনালী ফেরদৌসী মজুমদার দুজনেই জানালেন, এই সময় পর্যাপ্ত পরিমাণে পানি পান করা প্রয়োজন।

প্রতিদিনের খাদ্যতালিকায় পর্যাপ্ত পরিমাণ পানি, ডাবের পানি, ফলমূল ও সবজি রাখতে হবে।

Googleplus Pint
Noyon Khan
Manager
Like - Dislike Votes 6 - Rating 5 of 10
Relatedআরও দেখুনঅন্যান্য ক্যাটাগরি

পাঠকের মন্তব্য (0)