JanaBD.ComLoginSign Up

Internet.Org দিয়ে ফ্রিতে ব্রাউজ করুন আমাদের সাইট :) Search করুন , "জানাবিডি ডট কম" পেয়ে যাবেন ।

হায়দ্রাবাদের জয়, মুস্তাফিজ চমক অব্যাহত

ক্রিকেট দুনিয়া 24th Apr 2016 at 1:05am 794
হায়দ্রাবাদের জয়, মুস্তাফিজ চমক অব্যাহত

ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগে (আইপিএল) কিংস ইলেভেন পাঞ্জাবের বিপক্ষে সহজ জয় পেয়েছে সানরাইজার্স হায়দ্রাবাদ। শনিবার মুস্তাফিজুর রহমানের হায়দ্রাবাদ ৫ উইকেটে হারিয়েছে কিংস ইলেভেন পাঞ্জাবকে।

প্রথমে ব্যাট করে সানরাইজার্স হায়দ্রাবাদকে ৬ উইকেটে ১৪৪ রানের জয়ের লক্ষ্য ছুঁড়ে দেয় কিংস ইলেভেন পাঞ্জাব। জবাবে ১৩ বল হাতে রেখে ৫ উইকেট হারিয়েই ১৪৬ রান তুলে ফেলে হায়দ্রাবাদ।

পাঞ্জাবের দেওয়া সহজ লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে দুর্দান্ত শুরু করে হায়দ্রাবাদ। প্রথম উইকেটেই ৯০ রানের জুটি গড়েন ডেভিড ওয়ার্নার এবং শিখর ধাওয়ান। অধিনায়ক ওয়ার্নার ৫৯ এবং ধাওয়ান ৪৫ রানে আউট হলেও ততক্ষণে জয়ের ভিত্তিটা দাঁড় করিয়ে যান ঠিকই। হায়দ্রাবাদের হয়ে তৃতীয় সর্বোচ্চ ২৫ রান করেন ইয়ন মরগান। পাঞ্জাবের সন্দ্বীপ শর্মা, মোহিত শর্মা এবং রিশি ধাওয়ান প্রত্যেকেই ১টি করে উইকেট লাভ করেন।

এর আগে টসে হেরে ব্যাট করতে নেমে শুরুতেই ধাক্কা খায় পাঞ্জাব। তৃতীয় ওভারের প্রথম বলেই আঘাত হানেন ভুবেনেশ্বর কুমার। দলীয় ১৪ রানেই ফিরে যান ওপেনার মুরালি বিজয় (২)। এরপর মুস্তাফিজের ব্যক্তিগত প্রথম ও ইনিংসের ষষ্ঠ ওভারে রান আউটে কাঁটা পড়েন আরেক ওপেনার মনন ভোহরা। ২৩ বলে রিন চার ও এক ছয়ে ২৫ রান করা মনন আউট হন দলীয় ৩৫ রানে। নিজের প্রথম ওভারে প্রতিপক্ষের ব্যাটসম্যানদের কোন রান করার সুযোগই দেননি মুস্তাফিজ।

দলের বিপাকে হাল ধরেন শর্ন মার্শ। তৃতীয় উইকেট জুটিতে অধিনায়ক ডেভিড মিলারকে নিয়ে ২৮ রান যোগ করেন মার্শ। কিন্তু দশম ওভারে দলীয় ৬৩ রানে বিদায় নেন মিলার। ১১ বলে এক চারে ব্যক্তিগত নয় রান করে মইসেস হেনরিক্সের বলে নোমান ওঝার হাতে ক্যাচ দেন তিনি। দুই রানের ব্যবধানে একই ফিরে যান যান গ্লেন ম্যাক্সওয়েলও। দুই বলে মাত্র এক রান করে মুস্তাফিজের তালুবন্দী হন ম্যাক্সওয়েল।

এদিকে নিজের তৃতীয় ওভারে পাঞ্জাবের পক্ষে সর্বোচ্চ ৪০ রান করা শন মার্শকে ফেরান মুস্তাফিজ। ৩৪ বলে তিন চার ও দুই ছয়ে ৪০ রান করে দলীয় ৮৯ রানে মুস্তাফিজের বলে এলবিডব্লিউ'র ফাঁদে পড়ে আউট হন মার্শ। এরপর নিজের চতুর্থ ও ইনিংসের শেষ ওভারে ২২ রান করা নিখিল নায়েককে সাজ ঘরে ফেরান মুস্তাফিজ। ২৮ বলে এক চারে ২২ রান করে মুস্তাফিজের বলে হেনরিক্সের হাতে ক্যাচ দেন নিখিল।

অক্সার প্যাটেল ৩৬ ও ঋষি ধাওয়ান অপরাজিত ছিলেন ব্যক্তিগত দুই রানে। ১৭ বলে এক চার ও তিন ছয়ে প্যাটালের ঝড়ো ব্যাটিংয়ে পাঞ্জাবের ইনিংস থামে দলীয় ১৪৩ রানে।

এদিকে হায়দ্রাবাদের পক্ষে দু'টি করে উইকেট নিয়েছেন মুস্তাফিজ ও হেনরিক্স। এছাড়া ভুবেনেশ্বর কুমার নিয়েছেন একটি উইকেট।

তবে অন্যান্য দিনের তুলনায় এদিন বল হাতে অনেক বেশি মিতব্যয়ী ছিলেন মুস্তাফিজ। নির্ধারিত চার ওভারে মাত্র নয় রান দিয়ে তুলে নেন দু'টি উইকেট। বোলিংয়ে অসাধারণ নৈপুণ্য দেখানোর পাশাপাশি অস্ট্রেলিয়ার মারকুটে ব্যাটসম্যান গ্লেন ম্যাক্সওয়েলের ক্যাচ অসাধারণ ক্ষিপ্রতায় লুফে নেন। যার কারণে ম্যাচ সেরার পুরস্কারটাও নিজের করে নেন হায়দ্রাবাদের মুস্তাফিজ।

Googleplus Pint
Like - Dislike Votes 10 - Rating 6 of 10
Relatedআরও দেখুনঅন্যান্য ক্যাটাগরি

পাঠকের মন্তব্য (0)